আজ মন্ত্রিসভায় উঠছে কোটা বাতিলের সুপারিশ

218 total views, 1 views today

নিউজ ডেস্ক:: প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিল করে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ দিতে সচিব কমিটি যে সুপারিশ করেছে, সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে এ-সংক্রান্ত প্রস্তাব বুধবার মন্ত্রিসভায় উঠবে। কোটা পর্যালোচনা কমিটির পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বাতিলের প্রস্তাব অনুমোদন হলে এ মাসেই প্রজ্ঞাপন জারি কবে। আজ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

কমিটির মুখপাত্র ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব (বিধি) আবুল কাশেম মো. মহিউদ্দিন বলেন, কোটা নিয়ে কমিটির দেয়া সুপারিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে আমাদের কাছে এসেছে। মন্ত্রিসভার বৈঠকে উপস্থাপনের জন্য তা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠিয়ে দিয়েছি। আশা করছি, আজ মন্ত্রিসভার বৈঠকে সেটি অনুমোদনের জন্য উঠবে।

তিনি বলেন, আমরা সুপারিশটাই মন্ত্রিসভার বৈঠকে উপস্থাপনের জন্য পাঠিয়েছি। সেখানে নতুন করে কিছু যুক্ত করা হয়নি। এখন মন্ত্রিসভা যে সিদ্ধান্ত নেবে, সেটার ওপর ভিত্তি করেই প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

সরকারি চাকরির নবম থেকে ত্রয়োদশ গ্রেড পযন্ত, অর্থাৎ প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির পদে কোনো কোটা না রেখে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগের নিয়ম চালু করতে গত ১৭ সেপ্টেম্বর মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলমের নেতৃত্বে গঠিত কোটা পর্যালোচনা কমিটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সুপারিশ জমা দেয়। ওই কমিটির সুপারিশ প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পাওয়ায় তা এখন মন্ত্রিসভার বৈঠকে তোলা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশন শেষে ১ অক্টোবর ৯টায় তার দেশে ফেরেন। গতকাল প্রধানমন্ত্রী একনের সভা করেছেন। আজ মন্ত্রিসভার বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে হবে।

বর্তমানে সরকারি চাকরিতে নিয়োগে ৫৬ শতাংশ পদ বিভিন্ন কোটার জন্য সংরক্ষিত। এর মধ্যে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য ৩০ শতাংশ, নারী ১০ শতাংশ, জেলা ১০ শতাংশ, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ৫ শতাংশ ও প্রতিবন্ধী ১ শতাংশ। কোটার পরিমাণ ১০ শতাংশে নামিয়ে আনার দাবিতে কয়েক মাস আগে জোরালো আন্দোলন গড়ে তোলে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। তাদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে কোটা পদ্ধতি সংস্কারের উদ্যোগ নেয় সরকার।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •