খাগড়াছড়ির মাটিরাঙায় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি ও গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, দুপক্ষের পাঁচজন নিহত

সিলেট নিউজ টাইমস্ ডেস্ক:: বাংলাদেশের পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ির মাটিরাঙায় বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবির সঙ্গে গ্রামবাসীর সংঘর্ষে একজন বিজিবি সদস্যসহ মোট পাঁচজন নিহত হয়েছেন।

এছাড়া আহত হয়েছেন আরো অন্তত ১৫ জন।

ঘটনাটি ঘটেছে মাটিরাঙা শহর থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে গাজীনগর গ্রামে।

মাটিরাঙা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামসুদ্দিন ভুঁইয়া বিবিসিকে বলেছেন, সকালে গাজীনগর গ্রাম সংলগ্ন জঙ্গল থেকে আসা কাঠ বোঝাই একটি ট্রাক থামায় বিজিবির টহল দল।

এরপর গাছ কাটা বা কাঠ নিয়ে যাবার অনুমতিপত্র চাওয়া নিয়ে ট্রাকের চালক ও অন্যান্যদের সঙ্গে বিজিবির তর্ক ও বাদানুবাদ শুরু হয়।

“সেই বাদানুবাদ থেকে ঘটনা হাতাহাতি পর্যন্ত গড়ায়। এক পর্যায়ে এতে জড়িয়ে পড়ে গ্রামের অন্য বাসিন্দারাও। এক পর্যায়ে বিজিবি গুলি ছোড়ে। তারপর সংঘর্ষ আরো বড় আকার ধারণ করে।”

প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে সংঘর্ষ চলার পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

মি. ভুঁইয়া বলেছেন, সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে দুইজন গ্রামবাসী এবং একজন বিজিবি সদস্য নিহত হন। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান আহত আরো একজন সদস্য।

এদিকে, মাটিরাঙা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক নাহিদা আক্তার বিবিসিকে জানিয়েছেন, সংঘর্ষের পর হাসপাতালে প্রথমে চারজনকে নিয়ে আসা হয়েছিল, যাদের মধ্যে দুইজন তখন মৃত ছিলেন।

মাটিরাঙা শহর

এদের একজন বিজিবি সদস্য।

এছাড়া আহতদের মধ্যে দুইজনের আঘাত গুরুতর হওয়ায় তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

কিন্তু পথেই নাজিরহাট নামক জায়গায় আরেকজন আহত ব্যক্তিও মারা যান বলে জানিয়েছেন নাহিদা আক্তার।

এদিকে, পুলিশ জানিয়েছে, সংঘর্ষে স্বামী ও ছেলের মৃত্যুর ঘটনা শুনে হার্ট অ্যাটাকে একজন নারী মারা গেছেন বলে তারা শুনেছেন।

এখন পুলিশের জেলা সার্কেল কর্মকর্তারা সেখানে যাবার পথে রয়েছেন।

গাজীনগর এবং এর আশেপাশের এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

ঘটনাস্থলে এখন বিজিবি, সেনাবাহিনী এবং বাড়তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

নিরাপত্তা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে মাটিরাঙা জুড়ে।

পুলিশ কর্মকর্তা মি. ভুঁইয়া বলেন, আহতদের খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে এবং মাটিরাঙা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে।

কমেন্ট