নির্বাচনে হামলা ও কেন্দ্র ভাংচুরের সাথে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না :মিসবাহ সিরাজ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেছেন, নির্বাচনে যারা সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়েছেন তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। অপরাধী সকলকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।
তিনি গতকাল সোমবার বিকেলে সিলেট সদর উপজেলার টুকেরবাজারে ও কান্দিগাঁও ইউনিয়নের সিরাজুল ইসলাম মাদরাসা মাঠে পৃথক দু’টি সমাবেশে বক্তব্যে একথা বলেন। রোববার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে টুকেরবাজারের হাজী আব্দুস সাত্তার উচ্চ বিদ্যালয় ও সিরাজুল ইসলাম আলিম মাদরাসা কেন্দ্রে হামলার প্রতিবাদে পৃথক এই দু’টি সভা আহবান করা হয়।
সভায় মিসবাহ সিরাজ বলেন, নির্বাচনের দিন দুপুরে বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে বিএনপি-জামায়াত কর্মীরা পরিকল্পিতভাবে একই সঙ্গে হামলা চালিয়েছে। বিভিন্ন সেন্টারে বোমা হামলা ও গোলাগুলির চেষ্টা করেছে। তাদের উদ্দেশ্য ছিল ব্যালট-বাক্স ছিনতাই, আওয়ামী লীগের কর্মী-সমর্থকদের হত্যা করে নির্বাচনের ফলাফল ছিনিয়ে নেওয়া।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের একজন নেতাকর্মী বেঁচে থাকতে তাদের এই হীন উদ্দেশ্য সফল হবে না। এদেশে আইনের উর্ধ্বে কেউ নয়। সন্ত্রাসী, জঙ্গিবাদের ঠাঁই এই বাংলাদেশে হবে না। যারা বিভিন্ন স্থানে এসব তান্ডবলীলা চালিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করার চেষ্টা করেছে এবং আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালিয়েছে তাদে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

পরে মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ সন্ত্রাসী হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত টুকেরবাজার হাজী আব্দুর সাত্তার উচ্চ বিদ্যালয় ও কান্দিগাঁও ইউনিয়নের সিরাজুল ইসলাম আলিম মাদরাসা পরিদর্শন করেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি প্রকৌশলী এজাজুল হক এজাজ, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা জগদীশ দাস, কাউন্সিলর ইলিয়াছুর রহমান ইলিয়াস, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট নূরে আলম সিরাজী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক মকসুদ আহমদ, সদর উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি মকবুল হোসেন খান, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা শাহাব উদ্দিন লাল, হেলাল উদ্দিন, রফিক আহমদ, রেজাউল করিম ফুল মিয়া, মাস্টার আব্দুস শুকুর, টুকেরবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আলতাফ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মুকিত, কান্দিগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোজাহিদ আলী, স্থানীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে নুরুল হক, আলী হোসেন, মালাই মিয়া, মোয়াজ্জিন হোসেন, ইউপি সদস্য গিয়াস উদ্দিন, মুহিউদ্দিন, ইমাম উদ্দিন, জাবেদ আহমদ, কবির হোসেন, মিফতাহুল হুসেন লিমন প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.