প্রধানমন্ত্রী ও স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা বিয়ানীবাজারে সংখ্যালঘু পরিবারকে বিতাড়িত করে জমি দখলে মরিয়া একটি ভূমিখেকো চক্র

92 total views, 1 views today

বিয়ানীবাজার উপজেলার জলঢুপ মোলাপুর গ্রামে একটি সংখ্যালঘু পরিবারের জমি-জমা আত্মসাত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে স্থানীয় একটি ভূমিখেকো চক্র। এ ঘটনায় অসহায় এই পরিবার প্রশাসন সহ সকল মহলের সহযোগিতা কামনা করেছেন। জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে সংখ্যালঘু পরিবারকে বাড়ি ছাড়া করারও অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে উক্ত পরিবারের অভিযোগ।

জানা যায় জমসেদ আলী পিতা মৃত ইছুব আলী, আব্দুস শহীদ পিতা মৃত ইয়াকুব আলী, গ্রাম চন্দগ্রাম বিয়ানীবাজার, আবুল কাশেম (পল­ব) পিতা আব্দুল করিম নিদনপুর ও তাদের সহযোগীদের সাথে জমিজমা সংক্রান্ত মামলা সিলেট যুগ্ম জজ আদালতে বিচারাধীন আছে। (মামলা নং ৪৫/২০০৮, স্বত্ব ৪৮/ ২০১০ এবং জননিরাপত্তা আদালতে বিবিধ মামলা ৮৪/২০১১।

মামলার প্রেক্ষিতে আদালতের নির্দেশে ১৭ নভেম্বর ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও উকিল কমিশন করা হয়। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আদালতের কর্মকর্তাদের সামনেই লাঠিসোটা নিয়ে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে। এসব প্রভাবশালী ব্যক্তিরা জোরপূর্বক সংখ্যালঘু পরিবারের সদস্য বিধু ভূষণ সেন দাস, বিশ্বজিত সেন দাস কানাই ও বিভু সেন দাসের মালিকানাধীন সহায় সম্পত্তি গ্রাস করে নিতে তাদের জুলুম অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে। গত ২৬ সেপ্টেম্বর সকালে ভূমিখেকো পল­বের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী সংখ্যালঘু পরিবারের বিচারাধীন নালিশা ও নির্ভেজাল অন্যান্য জমি দখল করে নেয়। শুধু তাই নয় তারা এসব জমিতে বিধুভূষণ দাসের উক্ত ভূমিতে ফলায়া ছোট বড় অসংখ্য গাছপালা ও বাঁশ কেটে নিয়ে যায়।

যারা আনুমানিক মূল্য ২০ লাখ টাকার মতো হবে। ভূমিখেকো চক্র উক্ত বিধু ভূষণের মালিকানাধিন নির্ভেজাল টিলা ভূমির মাটি কেটে সেখানে দুটি ঘর নির্মাণ করে। সেখানে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসীরা অবস্থান করছে।

ভূমিখেকো চক্র সংখ্যালঘু পরিবারকে বাড়ী ছাড়া করার জন্য নানা জুলুম অত্যাচার চালিয়ে যাওয়ার কারণে বর্তমানে উক্ত পরিবার ভূমি খেকোদের কারণে সম্পূর্ণ নিরাপত্তীনতায় ভুগছেন।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •