জামালগঞ্জ সড়কের বেহাল অবস্থা

70 total views, 1 views today

নিজস্ব প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের, কাঠইর-জামালগঞ্জ সড়ক যান চলাচলের অনুপযুক্ত হয়ে পড়েছে। খানাখন্দকে ভরপুর সড়কের বিভিন্ন স্থানে প্রতিদিনই ছোটখাটো দুর্ঘটনা ঘটছে। বিশেষ করে কাঠইর থেকে হোসেন নগর পর্যন্ত এবং হোসেন নগর থেকে জয়নগর পয়েন্ট পর্যন্ত সড়কের অবস্থা খুবই খরাপ। দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের উদ্যোগ না নেওয়ায় চলাচলে নাভিশ্বাস ওঠেছে সুনামগঞ্জ সদর, জামালগঞ্জ ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার একটি অংশের কয়েক লাখ মানুষের।

তবে সম্প্রতি কাঠইর-জয়নগর সড়ক সংস্কারে প্রায় দেড় কোটি টাকার দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর।

উল্লেখ এই সড়কটি দিয়ে জামালগঞ্জ, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ও সদর উপজেলার একটি অংশের লোকজন নিয়মিত চলাচল করেন। এই সড়কটি এই অঞ্চলের লোকদের চলাচলের একমাত্র সড়ক।

ভুক্তভোগী এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, কাঠইর-জামালগঞ্জ সড়কের বেশিরভাগই চলাচলের অনুপযুক্ত। কাঠইর পয়েন্ট থেকে জয়নগর বাজার পর্যন্ত রাস্তার অবস্থা বেহাল। বিশেষ করে কাঠইর থেকে নোয়াগাও পর্যন্ত সড়কটি বেহাল। স্থানে স্থানে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। শাখাইতি মাদ্রাসার সামনেও বিশাল গর্ত দেখা গেছে। হোসেননগর পর্যন্ত সড়কের কিছু অংশ সামান্য ভালো থাকলেও হোসেন নগরের সেতু পেরোনোর পরই জয়নগর পয়েন্ট পর্যন্ত সড়কটির বিভিন্ন স্থানেও অসংখ্য গর্ত রয়েছে।

গত বছর এখানে সংস্কার হলেও নিম্ন মানের কাজের ফলে বিভিন্ন স্থানে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে জয়নগর থেকে ধনপুর পর্যন্ত সড়ক কিছুটা ভালো থাকলেও রূপাবালি থেকে নোয়াগাও পর্যন্ত রাস্তার অবস্থা বেহাল। এই সড়কের শাহপুর থেকে জামালগঞ্জ পর্যন্ত রাস্তাটির অবস্থাও বেহাল। দীর্ঘদিন আগে এখানে সংস্কারকাজ শুরু হলেও বিলম্বের কারণে যাত্রীদের দুর্ভোগ কমছেনা।

সদর উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে সম্প্রতি কাঠইর-জয়নগর সড়কের ৭ কি.মি. সড়ক সংস্কারের প্রায় ১ কোটি ৬৭ লক্ষ টাকার টেন্ডার আহ্বান করা হয়েছে। এখন যাছাই বাছাই করা হচ্ছে। দুই মাসের মধ্যেই কাজ শুরু হবে। এই লক্ষ্যে স্থানীয় প্রকৌশল অধিদপ্তর কাজ করছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

জানা গেছে একবিংশ শতাব্দীর শুরুতে কাঠইর-জামালগঞ্জ সড়কটি নির্মিত হয়। কিন্তু নিম্নে মানের কাজের কারণে কিছুদিন পরপরই সড়কটির বিভিন্ন স্থানে ভাঙ্গন ধরে। সংস্কার কাজে প্রতি বছর বিভিন্ন অংশে মোটা অংকের টাকা বরাদ্দ দেওয়া হলেও কাজের মান ভালো না থাকায় কিছুদিন পরপরই ভাঙ্গন দেখা দেয়। ফলে দুর্ভোগ পিছু ছাড়ছেনা এলাকাবাসীর।

জামালগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল খালেক বলেন, কাঠইর-জামালগঞ্জ সড়কটির বেশিরভাগই চলাচলের অনুপযুক্ত। বিভিন্ন সময়ে সংস্কার কাজ হলেও নিম্ন মানের কাজের কারণে কিছুদিন যেতে না যেতেই সড়কটি চলাচলের অনুপযুক্ত হয়ে পড়ে। যার ফলে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ কমছেনা। তিনি বলেন, রূপাবালি থেকে নোয়াগাও পর্যন্ত এবং শাহপুর থেকে জামালগঞ্জ পর্যন্ত সড়কের বিভিন্ন অংশে বড় গর্তের কারণে চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে জনগণকে।

সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কাঠইর ইউনিয়নের বাসিন্দা এডভোকেট বুরহান উদ্দিন বলেন, কাঠইর-জয়নগর সড়কটি এখন বেহাল অবস্থায় আছে। কাঠইর থেকে শাখাইতি পর্যন্ত সড়কের বিভিন্ন স্থানে বিরাট গর্ত রয়েছে। সংস্কার না হওয়ায় চলাচল কঠিন হয়ে পড়েছে। প্রতিদিনই ভাঙ্গনের কারণে দুর্ঘটনা ঘটছে। তিনি অবিলম্বে সঠিক ভাবে সড়কের সংস্কারকাজ শুরুর আহ্বান জানান।

সদর উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের সহকারি প্রকৌশলী মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, কাঠইর জয়নগর সড়কের ৭ কি.মি. সংস্কারের টেন্ডার আহ্বান করা হয়েছে। মূল্যায়ন শেষে নির্দিষ্ট প্রতিষ্টানকে কাজ বুঝিয়ে দিয়ে কার্যাদেশ দেওয়া হবে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •