ধর্ষণের পর মাথা কেটে নিয়ে গেছে ধর্ষকরা

35 total views, 1 views today

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ধলাই চা বাগান থেকে অজ্ঞাত এক নারীর মস্তকবিহীন মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে ধর্ষণের পর ওই নারীকে হত্যা করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে উপজেলার ধলাই চা বাগানের ১ নম্বর সেকশন এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের ধলাই চা বাগানের শ্রমিকরা সাদা শাড়ি মোড়ানো একটি মস্তকবিহীন মরদেহ দেখতে পেয়ে বাগান কর্তৃপক্ষকে জানায়। পরে কমলগঞ্জ থানা পুলিশকে খবর দেয়া হয়।

বিকেলে ওসি আরিফুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মদের বোতল, যৌন উত্তেজক ওষুধ ও কনডম উদ্ধার করে।

পুলিশের ধারণা, ওই নারীকে ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যা করে মরদেহ ফেলে গেছে ধর্ষণকারীরা। তবে মরদেহ যেন চেনা না যায় তাই মরদেহের মাথা কেটে নিয়ে গেছে তারা।

কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরিফুর রহমান জানান, মস্তকবিহীন মরদেহটি মৌলভীবাজার হাসপাতাল মর্গে সুরতহাল রিপোর্টের জন্য পাঠানো হয়েছে। নিহত নারীর মাথা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •