শিক্ষার্থীদের রাজপথ ছেড়ে ক্লাসে ফেরার আহ্বান শিক্ষামন্ত্রীর

42 total views, 1 views today

শনিবার সিলেটের মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির সমাবর্তন অনুষ্ঠান শেষে তিনি দেশজুড়ে চলমান ছাত্র আন্দোলন নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে এই আহ্বান জানান।

গত ২৯ জুলাই বাসচাপায় ঢাকার রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনে নামে ঢাকার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। পরে অন্য জেলায়ও ছড়িয়ে পড়ে আন্দোলন।

আন্দোলন থেকে ওঠা ৯টি দাবি পূরণের ঘোষণা দিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরার আহ্বান জানানো হলেও শুধু আশ্বাসে সন্তুষ্ট নন শিক্ষার্থীরা।

শনিবারও ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে সড়কে নামে শিক্ষার্থীরা। তারা বিক্ষোভের পাশাপাশি চালকদের লাইসেন্সও পরীক্ষা করে। তাদের আন্দোলনের পাল্টায় পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা বাস চালানো বন্ধ করে দেওয়ায় দুর্ভোগ চলছে দেশজুড়ে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “সরকার শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নিয়েছে। কিছু দাবি আছে, তা মানতে সময় প্রয়োজন।”

শিক্ষার্থীরা সড়ক দুর্ঘটনায়ে মৃত্যুর ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ শাস্তি রেখে নতুন আইনের দাবি জানিয়েছে। সড়ক পরিবহন আইনের খসড়া মন্ত্রিসভার পরবর্তী বৈঠকে উঠবে বলে জানানো হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো বাস্তবায়ন শুরু হলে তাদের ক্ষোভ কমে আসবে আশা প্রকাশ করে নাহিদ বলেন, তখন শিক্ষার্থীরা ধীরে ধীরে ঘরে ফিরতে শুরু করবে।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের এই সংগ্রামকে ‘শিক্ষা পরিবারের সংগ্রাম’ অভিহিত করে তিনি বলেন, “খুনি চালকদের শাস্তি নিশ্চিত করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকেও চাপ অব্যাহত রাখা হবে।”

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সুযোগ নিয়ে পরিবহন শ্রমিকরা সড়ক বন্ধ করে ‘নৈরাজ্য’ চালাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, “তাদের উচিত যান চলাচল স্বাভাবিক করে মানুষের চলাচল নিশ্চিত করা।”

সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান, মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম ও মেট্রোপিলটন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. সালেহ উদ্দিন বক্তব্য রাখেন।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  • 12
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    12
    Shares