প্রতিবন্ধীরা আমাদের সম্পদ তাদের প্রতি সহানুভূতিশীল হতে হবে: বিভাগীয় কমিশনার

51 total views, 2 views today

বিভাগীয় কমিশনার ড. নাজমান আরা খানুম বলেছেন, প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয় এরা আমাদের সম্পদ তাই তাদের প্রতি সহানুভূতিশীল হতে হবে। কাউকে পিছনে ফেলে নয় সবাইকে নিয়েই আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চাই।

বুধবার সকাল ১০টায় নগরীর উপশহরে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল সিলেট আয়োজিত ‘তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে এনডিডিসহ সব ধরনের প্রতিবন্ধী ব্যক্তির ক্ষমতায়ন’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল সিলেটের সেন্টার ইনচার্জ মধু সূদন চন্দের সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন,সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী এ জেড এম নূরুল হক, সমাজসেবা কার্যালয় সিলেটের উপ-পরিচালক নিবাস রঞ্জন দাস, স্থানীয় সরকার বিভাগ সিলেটের উপ-পরিচালক জাকারিয়া, সিলেট অলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী।

বিভাগীয় কমিশনার আরো বলেন, প্রতিবন্ধীদের উপযোগী সফটওয়ার এবং হার্ডওয়ার তৈরীর মাধ্যমে তাদেরকে প্রযুক্তিতে দক্ষ করে তুলতে সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ একটি কল্যাণ রাষ্ট্র তাই দেশের বাজেটে উন্নয়ন থেকে কল্যাণের খাতে বেশি বরাদ্ধ দেয়া হয়। প্রতিবন্ধীরা সুযোগ পেলে দেশ ও জাতির জন্য অনেক কিছু করতে পারে। এর প্রমান তারা দিয়েছে গত প্যারা অলিম্পিক এবং স্পেশাল অলিম্পিকে।
২০৪১ সালে আমাদেরকে একটি উন্নত রাষ্ট্রে পরিনত হতে হলে সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন করতে হবে।

মো: মনিরুজ্জামান (তনু) এর সঞ্চালনায় সভাপতির বক্তব্যে মধু সূদন চন্দ বলেন,বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল ২০১১ সাল থেকে প্রতিবন্ধীদের আইসিটি টেনিং দিচ্ছে। এ পর্যন্ত সারা দেশে ৬ হাজার প্রতিবন্ধীকে ট্রেনিং দেয়া হয়েছে। আমার চাই আমাদের দেশের প্রতিবন্ধীরা তথ্য প্রযুক্তিতে দক্ষতা অর্জন করার মাধ্যমে তাদের ক্ষমতায়নের ক্ষেত্র আরো প্রসারিত হোক।
সিলেটে আগামী ২ মাসের মধ্যে প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষায়িত ট্রেনিং প্রোগ্রাম চালু হচ্ছে।

সেমিনারের দ্বিতীয় পর্বে ছিল কিনোট উপস্থাপনা ও মুক্ত আলোচনা।এতে বিভিন্ন প্রতিবন্ধী প্রতিষ্ঠানের প্রধান, শিক্ষক, সাংবাদিক এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা অংশ গ্রহন করেন।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •