অবশেষে চলেই গেলেন পা হারানো রোজিনা

নিউজ ডেস্ক:: রাজধানীর বনানীতে বাসের চাকায় পা হারানো রোজিনা (১৮) অবশেষে চলেই গেলেন না ফেরার দেশে।রোববার সকাল সোয়া ৭টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন তার মৃত্যু হয়।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে রোজিনার মৃত্যু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাবা রুসুল মিয়া। তিনি বলেন, তারা সাত সন্তানের মধ্যে রোজিনা দ্বিতীয়। তার মায়ের নাম রাবেয়া খাতুন।

২০ এপ্রিল রাত ৯টায় বনানীতে বিআরটিসির একটি দোতলা বাস রোজিনাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে তার পায়ের ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে রোজিনার ডান পা গুরুতর জখম হয়। সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ওই বাসের চালক শফিকুল ইসলাম মুন্নাকে আটক করেছে পুলিশ। তাকে ১ দিনের রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়।

রোজিনা নিকেতনের ১২ নম্বর সড়কে সাংবাদিক ইশতিয়াক রেজার বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করতেন। ওইদিন এক বান্ধবীর বাসা থেকে ফেরার পথে তিনি এ দুর্ঘটনার শিকার হন।

এর আগে বনানীতে বিআরটিসির বাসে চাপা পড়ে পা হারানোর পরপরই তাকে অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানের (পঙ্গু হাসপাতাল) নেয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার কিছুটা অবনতি হলে ২৫ এপ্রিল তাকে ঢামেক হাসপাতলের বার্ন ইউনিটের হাই ডিপেন্ডেন্সি ইউনিটে (এইচডিইউ) ভর্তি করা হয়। পরে তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি ঘটলে তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন আজ তার মৃত্যু হল।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.