ভিডিওতে কাঁদলেন পপি, বললেন ‘জানের ভয়ে’ আছি

বিনোদন ডেস্ক:: বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন যেন এখন আর এফডিসি এবং অভিনয়শিল্পীদের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। দেশব্যাপী আলোচনার কেন্দ্রতে পরিণত হয়েছে এ নির্বাচন।

আর দুদিনও নেই নির্বাচনের। এরমধ্যেই চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে প্রকাশ্যে এসেছেন তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত জনপ্রিয় নায়িকা সাদিকা পারভিন পপি

বেশ কয়েকবছর ধরে ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় এ নায়িকা আড়ালেই ছিলেন।  গুঞ্জন উঠেছিল বিয়ে করে সংসারী হয়েছেন তিনি। জন্ম দিয়েছেন সন্তান। তবে এসব নিয়ে কখনও কথা না বললেও এবার শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে মুখ খুলেছেন তিনি।

বুধবার দুপুরে পপির সাড়ে ৫ মিনিটের একটি ভিডিওবার্তা ছড়িয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কিছু না বললেও শিল্পী সমিতির আসছে নির্বাচন নিয়ে অনেক কথা বলেছেন তিনি। সেই সঙ্গে ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের প্রতি নিজের সমর্থনের কথাও জানিয়েছেন।

ভিডিও বার্তায় পপি বলেন, বর্তমান শিল্পী সমিতির একটিমাত্র লোকের কারণে, তার পলিটিক্স এবং তার অনেক রকম অসহযোগিতার কারণে আমাকে বারবার অপমানিত হতে হয়েছে। শুধু আমি না, আমার মতো রিয়াজ, ফেরদৌস, পূর্ণিমা, নিপুণও অপমানিত হয়েছেন।… যার কারণে আজ আমি ভিকটিম। আমার মতো শিল্পীকে সদস্য পদ বাতিলের জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছে। এত বছর কাজ করার পর এমন আচরণ, একটা শিল্পীর জন্য কতটুকু অপমানের-সেটা বুঝতে পারি। আমার মতো যারা ভিকটিম হয়েছেন, ১৮৪ জন শিল্পীরা হয়তো আমার কষ্টটা বুঝতে পারবে।

পপি বলেন, আমার মানসম্মানের ভয় ছিল, জানের ভয় ছিল। সবকিছু মিলে আমি নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছি সিনেমা থেকে। আমার কাছে সদস্য পদ বাতিলের চিঠিটা এখনও আছে। ওই চিঠিটা যখনই পেয়েছি, তখনই সিদ্ধান্ত নিয়েছি- এই নোংরামির মধ্যে আর আমি যাবো না। ভেবেছি, কখনো যদি পরিবেশ ভালো হয়- তখনই চলচ্চিত্রে ফিরব।

২৮ জানুয়ারির নির্বাচনে ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলকে ভোট দিতে সবাইকে আহ্বান জানিয়েছেন এ অভিনেত্রী।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.