ক্রিকেটই ছেড়ে দিলেন আইপিএল ইতিহাসের সবচেয়ে দামি তারকা

স্পোর্টস ডেস্ক::  ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) গত মৌসুমজুড়ে আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন প্রোটিয়া তারকা ক্রিস মরিস।

১৬.২৫ কোটি রুপিতে (বাংলা মূদ্রায় ১৮.৮৭ কোটি টাকায়) তাকে কিনে নিয়েছিল রাজস্থান রয়্যালস।

মরিসকে এতো দামে কেন কিনল রাজস্থান বা সত্যি তিনি এতো দামি তারকা কি না সে প্রশ্ন গোটা টুর্নামেন্টে ঘুরপাক খেয়েছে।

আসন্ন মৌসুমে এ পেস অলরাউন্ডার কত মূল্য পান – সে কৌতূহল হৃদয়ে পুষে রেখেছিলেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

আর সবাইকে হতবাক করে দিয়ে গত মৌসুমের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় অবসরই নিয়ে নিলেন। ক্রিকেট খেলাই ছেড়ে দিলেন তিনি!

ইনস্টাগ্রামে মঙ্গলবার এক পোস্টে মরিস বলেছেন, ‘আজ আমি সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করছি। এ অভিযাত্রায় আমার পাশে যারা ছিলেন, সবাইকে ধন্যবাদ। ক্যারিয়ারটা আনন্দে কেটেছে। টাইটানসের কোচ হিসেবে কাজ করার সুযোগ পেয়ে আনন্দিত।’

 

 

দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া ক্রিকেটের দল টাইটানসে কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন মরিস। তিনি নিজেও খেলেছেন দলটির হয়ে।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৪ টেস্ট, ৪২ ওয়ানডে ও ২৩ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন মরিস। আইপিএলে তিনি ছিলেন বরাবরই ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর পছন্দের তালিকায়। সব সময়ই  চড়া দাম পেয়েছেন। ২০১৩ আইপিএলে ৩.৩ কোটি রুপিতে বিক্রি হয়েছিলেন তিনি, ওই মৌসুমের তৃতীয় সর্বোচ্চ দামি খেলোয়াড় হয়েছিলেন তিনি।

২০১৬ তে ৭ কোটি রুপিতে তাকে কিনেছিল দিল্লি ডেয়ারডেভিলস। ২০২০ সালের আসরে তার দাম বেড়ে হয় ১০ কোটি রুপি। তাকে কিনে নেয় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু।

টি-টোয়েন্টি সংস্করণে ২৩৪ ম্যাচে ২২.২১ গড়ে ২৯০ উইকেট নিয়েছেন মরিস। ওভারপ্রতি রান দিয়েছেন ৭.৭৮। ব্যাটিংয়ে স্ট্রাইকরেট ১৫০.০৪। গত আইপিএলেও ১১ ম্যাচ খেলা মরিস ১৫ উইকেট নেন।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.