দুপক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে প্রাণ গেল প্রতিবন্ধী বৃদ্ধের

সিলেট নিউজ টাইমস্ ডেস্ক:: ফরিদপুরের সালথায় ইউপি নির্বাচন ও জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে দুপক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে আহত মোহাম্মদ মাতব্বর (৬২) নামে এক শারীরিক প্রতিবন্ধীর মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার রাত ২টার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে তিনি মারা যান।

নিহত মোহাম্মদ মাতব্বর সালথা উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের নারানদিয়া দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত জহুর মাতব্বরের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, সালথা উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের নারানদিয়া দক্ষিণপাড়া গ্রামের নুরু মাতব্বর এবং নারানদিয়া মধ্যপাড়া গ্রামের ওহিদ মাতব্বর গত ১১ নভেম্বর ইউপি নির্বাচনে সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

ওই নির্বাচন কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এ ছাড়া দুপক্ষের মধ্যে জমি নিয়েও বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে শনিবার সন্ধ্যায় নুরু মাতব্বর ও তার সমর্থকদের সঙ্গে ওহিদ মাতব্বর ও তার সমর্থকদের সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষের একপর্যায়ে নুরু মাতব্বরের চাচা মোহাম্মদ মাতব্বরকে পিটিয়ে আহত করে প্রতিপক্ষরা। আহত মোহাম্মদ মাতব্বরকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন শনিবার রাত ২টায় তিনি মারা যান।

নিহত মোহাম্মদ মাতব্বরের মেয়ে মাহফুজা বেগম বলেন, আমার বাবা হত্যার বিচার দাবি করছি। খুনিদের ফাঁসি চাই।

সালথা থানার ওসি আশিকুজ্জামান বলেন, দুপক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে নিহত হন মোহাম্মদ মাতব্বর। লাশ উদ্ধার করে ফরিদপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত সালথা থানায় কোনো মামলা হয়নি।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.