ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলার আইনের দাবী নিয়ে প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মানব বন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক :: দেশজুড়ে হঠাৎ করেই বেড়েছে নেক্ষারজনক ধর্ষণের ঘটনা।একের পর এক ঘটে যাচ্ছে ধর্ষণ। সম্প্রীতি ঘটে গেছে মৌলভীবাজারে কলেজছাত্রী ও তার বান্ধবীকে সিন জি দিয়ে তুলে নিয়ে গনধর্ষন।এর প্রতিবাদে মানব বন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে প্রগতিশীল ছাত্র জোট।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে শহরের চৌমুহনা এলাকায় সুবিনয় রায় শোভনের সভাপতিত্বে ও মারুফ হোসেনের পরিচালনায় মানব বন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ প্রগতি লেখক সংঘের জাবেদ ভুঁইয়া, ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক পিনাক দেব, ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি রেহনুমা রুবাইয়াসহ অন্যন্যরা।

এসময় বক্তারা বলেন দেশের বিচার ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ায় ও বিচারহীনতার কারণেই ধর্ষণ বেড়ে গেছে। বার বার নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। তারা দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।মানবন্ধনে অংশগ্রহণকারী ছাত্রীরা বিভিন্ন ফেস্টুন ও প্লে কার্ডের মাধ্যমে ধর্ষক তৈরির সমাজ নয়, মানুষ তৈরির সমাজ ও শিক্ষা চাই ও ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলার আইন চেয়ে স্লোগান প্রদর্শন করেন। মানবন্ধনে আসা মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী রিজওয়ানা আক্তার মারইয়াম বলেন, আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি, বিশেষ করে সম্প্রতি সি এন জি থেকে তুলে নিয়ে কলেজছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় আমাদের মনে ভীতি সৃষ্টি করেছে, আমরা একটা নিরাপদ সমাজ চাই,যে সমাজে মেয়েদের নিরাপত্তা নিশ্চিত থাকবে,আমরা চাই সমাজ ধর্ষক মুক্ত হোক।

শিক্ষার্থী হিসেবে আমরা যেন নিরাপদ ভাবে শিক্ষাজীবন অতিবাহিত করতে, প্রতিটি নারী যেন খুঁজে পায় তার নিরাপদ অবস্থান।ধর্ষণ মুক্ত একটা বাংলাদেশ চাই।

কমেন্ট