পদক পেলেন সিলেটের ১৪ পুলিশ সদস্য

79 total views, 1 views today

সিলেট নিউজ টাইমস্ ডেস্ক:: ২০১৮ সালে অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে পুলিশ বাহিনীর ৩৪৯ জন সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক-বিপিএম, বিপিএম সেবা, রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদক-পিপিএম ও পিপিএম সেবা পদক দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে পদকপ্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

রাষ্ট্রপতির আদেশে উপসচিব ফারজানা জেসমিন স্বাক্ষরিত এ প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ৪০ জন পুলিশ সদস্যকে বিপিএম, ৬২ জনকে পিপিএম এবং গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদঘাটন, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও শৃঙ্খলামূলক আচরণের মাধ্যমে প্রশংসনীয় অবদানের জন্য ১০৪ জন পুলিশকে বিপিএম সেবা এবং ১৪৩ জনকে পিপিএম সেবা পদক প্রদান করা হলো।’

সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি, অতিরিক্ত ডিআইজি, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার, তিন জেলা পুলিশ সুপারসহ র‌্যাব ও র‌্যাব ও পুলিশের ১৪ জন কর্মকর্তা ও সদস্য পদকপ্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন। এদের মধ্যে মৌলভীবাজার সদর মডেল থানার এএসআই বিকাশ চন্দ্র দে (বিপি ৮১০০০৯৫৪৮৮) বিপিএম পদক পেয়েছেন। এছাড়া বিপিএম সেবা পদক পেয়েছেন ৬ জন এবং পিপিএম সেবা পদক পেয়েছেন ৭ জন।

বিপিএম সেবা পদক প্রাপ্তরা হলেন- সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি কামরুল আহসান, এসএমপির কমিশনার গোলাম কিবরিয়া, র‌্যাব-৯ এর সদ্য বিদায়ী অধিনায়ক লে. কর্ণেল আলী হায়দার আজাদ আহমদ, রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব কুমার ভদ্র, সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার বরকতুল্লাহ খান, এসএমপির কনস্টেবল মো. ইব্রাহিম ইসলাম সুফন।

আর প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল পিপিএম সেবা প্রাপ্তরা হচ্ছেন- সিলেট জেলা পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান, মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ সুপার মো. শাহজালাল বিপিএম, হবিগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা বিপিএম-সেবা, মৌলভীবাজার জেলা পিবিআইর পুলিশ সুপার মো. শাহাদত হোসেন, এসএমপির অতিরিক্ত উপ কমিশনার জ্যোর্তিময় সরকার, সিলেট জেলার ওসমানীনগর থানার এসআই (নিরস্ত্র) মমিনুল ইসলাম এবং সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর থানার এসআই (নিরস্ত্র) হাবিবুর রহমান।

আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি পুলিশ সেবা সপ্তাহ-২০১৯ উপলক্ষে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পদকপ্রাপ্তদের হাতে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.