সিলেট নগরীতে জোরপূর্বক শিশুদের দিয়ে পতিতাবৃত্তি,৬০ পিস ইয়াবাসহ আটক ২

সিলেট নিউজ টাইমস্:: শিশুদের দিয়ে জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তি করানোর অপরাধে নারীসহ ২জনকে আটক করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব) ৯। রোববার (২৭ জানুয়ারি) সকালে সিলেট নগরীর দাড়িয়াপাড়া এলাকা থাকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের আটক করা হয় বলে জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গণমাধ্যম) মো. মনিরুজ্জামান।

রোববার দুপুরে গণমাধ্যমে প্রেরিত ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গণমাধ্যম) মো. মনিরুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় র‍্যাব-৯। বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয় এ দুইজনকে আটককালে তাদের বাসা থেকে ৬০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও তাদের কাছে বন্দি থাকা দুই শিশুকে উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলো, সিলেট নগরীর মেডিকেল রোডস্থ মুন্সিপাড়া নিবাসী মৃত আব্দুল রশিদের পুত্র মো. রোকন উদ্দিন ভূঁইয়া (৪০) ও নেত্রকোনা জেলার কালিয়াজুড়ি থানার আটগাঁও গ্রামের মৃত মফিজুল মিয়ার কন্যা রিমা বেগম (৩৫)। তবে বর্তমানে তারা নগরীর দারিয়াপাড়াস্থ মেঘনা এ-২৬/১ বাসায় বসবাস করে আসছিলেন।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দাড়িয়াপাড়া মেঘনা এ-২৬/১ এর বাসার নীচ তলায় শিশুদের দিয়ে জোর পূর্বক পতিতাবৃত্তি এবং ইয়াবা ব্যবসায়ী অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯, নগরীর দাড়িয়াপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে কৌশলে পালিয়ে যাওয়ার নারীসহ দুইজনকে আটক করে র‌্যাব।

পরে পরবর্তীতে আটকৃতদের বাসা তল্লাশি করে ৬০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ জোরপূর্বক ইয়াবা সেবনের মাধ্যমে পতিতাবৃত্তি করানো ২জন শিশুকে উদ্ধার করা হয়। পরে আটোককৃতদের সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

প্রসঙ্গত, আটক মো. রোকন উদ্দিন ভূঁইয়া বাংলাদেশ পুলিশের এসআই, বর্তমানে তিনি ৭ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন, লালাবাজার, সিলেটে কর্মরত আছেন। তার সঙ্গে জড়িত রিমা বেগম অবৈধভাবে স্বামী স্ত্রী পরিচয় দিয়ে দাড়িয়াপাড়া মেঘনা এ-২৬/১ ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.