পুলিশ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে সিলেটে র‌্যালি

56 total views, 1 views today

সিলেট নিউজ টাইমস্ :: পুলিশ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে সিলেটের বর্ণাঢ্য র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার সকাল ১১টায় নগরের ক্বিনব্রীজ থেকে র‌্যালিটি বের হয়। যা বিভিন্ন সড়ক ঘুরে নগরীর চৌহাট্টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

মেট্রোপলিটন পুলিশের উদ্যোগে র‌্যালিতে বিভিন্ন বাক্য সম্বলিত প্লেকার্ড নিয়ে পুলিশের বিভিন্ন শাখার সদস্যরা অংশ নেন। আগামী ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এ সপ্তাহ চলবে।

এ উপলক্ষে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ এসএমপির সেবা কার্যক্রম নগরবাসীর দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

শনিবার সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের পক্ষে অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া এন্ড কমিউনিটি সার্ভিস) মো. জেদান আল মুসা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। নগরবাসীকে উন্নত পুলিশী সেবা দিতে এসএমপি নিরলসভাবে কাজ করছে বলেও এতে উল্লেখ করা হয়েছে।

অপরাধ দমন ও নিয়ন্ত্রণকল্পে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের সেবামূলক কার্যক্রম সমূহ: (১) ওপেন হাউজ ডে : এসএমপির আওতাধীন ৬টি থানায় প্রতি মাসে ১দিন ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠিত হয়। ওপেন হাউজ ডে’তে থানা এলাকার জনপ্রতিনিধি, পেশাজীবী, সাংবাদিক, সাধারণ জনগণসহ থানায় কর্মরত সকল অফিসার, ফোর্স এবং সেখানে এসএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত থাকেন। ওপেন হাউজ ডে’তে জনগণের সাথে পুলিশের কার্যক্রম নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করা হয় এবং অপরাধ দমন, নিবারণ ও আইন শৃঙ্খলা উন্নয়নে তাদের মতামত গ্রহণ করা হয়।

(২) কমিউনিটি পুলিশিং : এসএমপির প্রতিটি থানায় কমিউনিটি পুলিশিংয়ের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ছয়টি থানা কমিটি, ২০ টি ইউনিয়ন কমিটি, ১৮০ টি ওয়ার্ড (ইউনিয়ন) কমিটি এবং ২৭ টি সিটি কর্পোরেশন ওয়ার্ড কমিটি দ্বারা কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। কমিউনিটি পুলিশিং এর মাধ্যমে বিভিন্ন সভা সেমিনার করে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় অপরাধ দমনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করা হচ্ছে।

(৩) বিট পুলিশিং ও ভাড়াটিয়া তথ্য সংগ্রহ : এসএমপির ছয়টি থানাকে মোট ৬৭ টি বিটে ভাগ করে বিট পুলিশিং কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। প্রতিটি বিটের জন্য একজন করে এসআই ও একজন করে এএসআই নিয়োগ করা হয়েছে। বিটের এলাকার জনসাধারণের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করে বিট অফিসার এলাকার খোঁজ খবর রাখেন এবং বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করেন। বিট পুলিশিংয়ের মাধ্যমে অপরাধ দমন অপরাধী সনাক্তকরণ সহজ হয়েছে এবং সাধারণ জনগণ উন্নত সেবা পাচ্ছে।

(৪) ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা : এসএমপির আওতাধীন শহর ও শহরের বাহিরে ট্রাফিক ব্যবস্থা সচল রাখতে নিয়মিত ফক পুলিশ নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে। শহরের প্রতিটি রাস্তায় ডিভাইডার স্থাপন করে জন দুর্ভোগ কমানো হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে অতিরিক্ত ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন করে সেবার মান বৃদ্ধি করা হয়েছে। তাছাড়া, এসএমপি ট্রাফিক বিভাগ ‘ট্রাফিক সেবা সপ্তাহ ২০১৯’ উদযাপন করবে। এ ক্ষেত্রে ট্রাফিক বিভাগ সড়কে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাসহ বিভিন্ন সেবা মূলক কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। ট্রাফিক সেবা সপ্তাহ ২০১৯ এর মূলমন্ত্র হলো- ‘পুলিশকে সহায়তা করুন, পুলিশের সেবা গ্রহণ করুন’।

(৫) সিসি ক্যামেরা স্থাপন : সিলেট মেট্রোপলিটন এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সর্বমোট ৩৭টি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করে সার্বক্ষণিক নজরদারির জন্য কোতোয়ালি মডেল থানায় কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সহায়তায় সমস্ত শহরকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

(৬) পাসপোর্ট ভেরিফিকেশন : সিলেট নগরবাসীদের পাসপোর্ট এর ভেরিফিকেশন প্রদানের সুবিধার জন্য এসএমপি সদর দপ্তরে নগর বিশেষ শাখায় ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালু করা হয়েছে। যার মাধ্যমে সাধারণ জনগণ সহজে পাসপোর্ট ভেরিফিকেশন সেবা পেতে পারেন।
(৭) অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট সেবা : প্রবাসী এবং বিদেশ গমনেচ্ছুদের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট সেবাটি অনলাইনে চালু করা হয়েছে। নগরবাসী অনলাইনে (http://pcc.police.gov.bd) যে কোন স্থান থেকে সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করতে পারছেন। ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি থেকে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশে অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সেবাটি চালু হয়।

(৮) প্রবাসী কল্যাণ ডেস্ক : প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানকল্পে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ প্রবাসী কল্যাণ ডেস্ক চালু করেছে এবং এই ডেস্কের মাধ্যমে প্রবাসীদের সুযোগ সুবিধা, অভিযোগ অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে দেখা হয় এবং প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করা হচ্ছে।

(৯) বিডি পুলিশ হেল্প লাইন : বিডি পুলিশ হেল্প লাইন নামক অ্যাপসটির মাধ্যমে বাংলাদেশের যে কোন নাগরিক পুলিশের সেবা পেতে বা কোন বিষয়ে কোন অভিযোগ জানাতে এমনকি কোন অপরাধী সম্পর্কে নিজের পরিচয় গোপন রেখে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণকে তথ্য প্রদান করতে পারেন।

(১০) ব্যাংকের টাকা এস্কর্ট : বিভিন্ন ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তি পর্যায়ের এক স্থান থেকে অন্য স্থানে দুই লক্ষ বা তার অধিক টাকা নিয়ে নিরাপদ গন্তব্য স্থানে পৌঁছানোর জন্য প্রত্যেক থানার অফিসার সহযোগিতা করছে।

(১১) ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার : সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশে কোতোয়ালি মডেল থানায় স্থাপিত ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার সমাজের নিপীড়িত ও নির্যাতিত নারী, শিশুদের বিনামূল্যে আইনগত সহায়তা এবং সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে।

(১২) থানায় শিশু বান্ধব কর্মকর্তা নিয়োগ : শিশু-কিশোর সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো শিশু আইন-২০১২ এর ১৩ ধারা অনুযায়ী শিশু বিষয়ক ডেস্ক ও ১৪ ধারা অনুযায়ী শিশু বিষয়ক পুলিশ কর্মকর্তার দায়িত্ব ও কার্যাবলী সংক্রান্ত সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিটি থানায় একজন শিশু বান্ধব কর্মকর্তা সেবা প্রদান করে আসছে।

(১৩) সার্ভিস ডেলিভারি সেন্টার স্থাপন : সিলেট মেট্রোপলিটন এলাকার প্রতিটি থানায় একজন করে সার্ভিস ডেলিভারি অফিসার নিয়োগ করা হয়েছে। ফলে জনগণ সহজেই পুলিশি সেবা পাচ্ছে।

(১৪) ওমেন সাপোর্ট ডেস্ক : সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উত্তর এবং দক্ষিণ বিভাগে নির্যাতিত নারীদের অভিযোগ গ্রহণ ও আইনানুগভাবে সমাধানের জন্য ওমেন সাপোর্ট ডেস্ক সেবা প্রদান করছে।

(১৫) তথ্য প্রদানকারী অফিসার নিয়োগ : সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের ৬টি বিভাগ যথা : ১. সদর দপ্তর বিভাগ ২. পিওএম বিভাগ ৩. ডিবি ও প্রসিকিউশন বিভাগ ৪. দক্ষিণ বিভাগ ৫. উত্তর বিভাগ এবং ৬. ট্রাফিক বিভাগ-২০১৭ সালের ৮ জুন তারিখে তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ এর ১০(১) ধারা মোতাবেক স্ব স্ব দপ্তরের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত তথ্য কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়েছে। তথ্য প্রদানকারী অফিসারের দায়িত্ব হলো সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ তার গৃহীত সিদ্ধান্ত, কার্যক্রম, কিংবা সম্পাদিত বা প্রস্তাবিত কর্মকা-ের সকল তথ্য নাগরিকদের নিকট সহজলভ্য রূপে প্রকাশ ও প্রচার করবে।

(১৬) সেবামূলক ডিসপ্লে বোর্ড/ফলক : সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উত্তর এবং দক্ষিণ বিভাগের প্রতিটি থানায় ১টি করে সেবামূলক ডিসপ্লে সার্ভিস ডেলিভারি কর্মকর্তার সামনে স্থাপন করা হয়েছে। থানায় আগত সেবা প্রত্যাশী/সেবা গ্রহীতা থানার সেবা সম্পর্কে যে কোন অভিমত/মতামত এমনকি, অভিযোগ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণকে অবহিত করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

(১৭) জাতীয় জরুরি সেবা-৯৯৯ : ২০১৭ সালের ১১ ডিসেম্বরে সরকার জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ চালু করে। জরুরী প্রয়োজনে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস এবং এ্যাম্বুলেন্স সেবা মানুষের দোড়গোঁড়ায় পৌঁছে দেয়ার জন্য এই সেবার যাত্রা শুরু হয়। এছাড়াও ২৪ ঘণ্টা জরুরী প্রয়োজনে এসএমপি কন্ট্রোল রুমের ০১৭১৩৩৭৪৩৭৫ ও ০৮২১-৭১৬৯৬৮ নাম্বারে যোগাযোগ করা যেতে পারে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •