মেঘনায় ট্রলারডুবি: নিখোঁজ ২০ জনের মধ্যে মিলল ২ লাশ

121 total views, 1 views today

নিউজ ডেস্ক :: মুন্সীগঞ্জের মেঘনা নদীতে মাটিবোঝাই ট্রলারডুবির ঘটনার ছয় দিন পর নিখোঁজ ২০ শ্রমিকের মধ্যে দুজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার সকাল ৯টার দিকে গজারিয়া লঞ্চঘাট এলাকার কাছে এক যুবক (৩০) ও দুপুর পৌনে ১২টায় চাঁদপুরের মতলবের মেঘনা নদীতে আরেকজনের মৃতদেহ পাওয়া গেছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

গজারিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হাসান সাদী জানান, সকাল ৯টার দিকে মুন্সীগঞ্জ ও চাঁদপুরের মেঘনা নদী থেকে দুটি মরদেহ উদ্ধার করেছে উদ্ধারকারী দল।

নিহতদের স্বজনদের খবর দেয়া হয়েছে। তারা ঘটনাস্থলে এসে মৃতদেহ শনাক্ত করবে। নিখোঁজ ১৮ জনের সন্ধানে মেঘনায় এখনও অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান নির্বাহী কর্মকর্তা।

এর আগে শুক্রবার রাতে গজারিয়া থানায় ডুবে যাওয়া ট্রলারের মালিক জাকির দেওয়ান, সারেং হাবিব ও দুর্ঘটনায় জড়িত তেলের ট্যাংকারের চালককে আসামি করে মামলা করেছে দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া যাত্রী শাহ আলম।

শনিবার বিকালে মুন্সীগঞ্জ অংশের উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। তবে আজ চাঁদপুর অংশে অভিযান শুরু হয়।

উল্লেখ্য, ১৪ জানুয়ারি ভোররাত ৩টার দিকে চাঁদপুরের মতলব উপজেলা ও মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলা সীমান্তবর্তী কালিপুরা এলাকাসংলগ্ন মেঘনা নদীতে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্যাংকারের ধাক্কায় ৩৪ শ্রমিক নিয়ে ডুবে যায় মাটিবোঝাই ট্রলারটি। ট্রলারে থাকা শ্রমিকদের মধ্যে ১৪ জন সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও নিখোঁজ রয়েছেন ২০ শ্রমিক।

নদী সাঁতরে তীরে ওঠা শ্রমিকদের বরাত দিয়ে গজারিয়া নৌপুলিশ জানায়, মাটি নিয়ে কুমিল্লার দাউদকান্দি থেকে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার বক্তাবলীর দিকে যাচ্ছিল ট্রলারটি। নিখোঁজ ২০ জনের মধ্যে ১৮ জনের পরিচয় মিলেছে। ১৭ জনের বাড়ি পাবনার ভাংগুড়া উপজেলায়।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.