সৌদির কাছে অস্ত্র বিক্রি বন্ধের রাস্তা খুঁজছে কানাডা

107 total views, 1 views today

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো প্রথমবারের মতো স্বীকার করেছেন যে, তার সরকার সৌদি আরবের সঙ্গে করা কয়েকশ কোটি ডলারের অস্ত্রচুক্তি থেকে বের হয়ে যাওয়ার পথ খুঁজছে। রোববার প্রচারিত হওয়া এক সাক্ষাৎকারে কানাডার প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেছেন। খবর রয়টার্সের।

এর আগে ট্রুডো বলেছিলেন, যদি অটোয়া ১৩০০ ডলারের অস্ত্রচুক্তি থেকে বেরিয়ে যায় তাহলে বিশাল পরিমাণ অর্থ জরিমানা দিতে হবে। কিন্তু রোববারের ওই সাক্ষাৎকারের মধ্য দিয়ে কানাডার কঠোর মনোভাব ফুটে উঠলো। চুক্তি অনুযায়ী জেনারেল ডায়নামিকস করপোরেশনের কানাডা ইউনিটের তৈরি বর্মযুক্ত যান কেনার কথা রয়েছে সৌদি আরবের।

গত মাসে ট্রুডো বলেন, যদি তাদের অস্ত্রের অপব্যহার হচ্ছে এমনটা তারা জানতে পারেন তাহলে অস্ত্র রপ্তানি বন্ধ করে দেবে তার দেশ।

সিটিভিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ট্রুডো বলেন, আমরা দেখছি সৌদি আরবের কাছে ওই যানগুলো বিক্রি না করার জন্য পথ খোলা রয়েছে কিনা। তবে ট্রুডো এর চেয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি।

সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ড এবং ইয়েমেন যুদ্ধে সৌদি আরবের সংশ্লিষ্টতার কথা উল্লেখ করে জেনারেল ডায়নামিকসের ওই চুক্তি বাতিলের ব্যাপারে ট্রুডোর প্রতি আহ্বান জানিয়ে আসছিল তার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা। কানাডার বিগত কনজারভেটিভ সরকারের সময় রিয়াদের সঙ্গে ওই চুক্তি সই করেছিল অটোয়া।

চলতি বছরের শুরুর দিকে মানবাধিকার ইস্যুতে অটোয়া ও রিয়াদের মধ্যকার সম্পর্কে টানাপোড়েন দেখা দেয়। অটোয়া জানিয়েছে, ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতর খাশোগিকে হত্যার ঘটনায় কী পদক্ষেপ নেয়া যায় তা নিয়ে মিত্রদের সঙ্গে আলাপ করছে তারা।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী বলেন, একজন সাংবাদিককে হত্যা একেবারে অগ্রহণযোগ্য এবং এ কারণে শুরু থেকেই কানাডা এ বিষয়ে প্রশ্ন তুলে আসছিল এবং সমাধান কী হতে পারে তা জানতে চাইছিল।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.