অবশেষে নানার বিরুদ্ধে তনুশ্রীর লিখিত অভিযোগ

135 total views, 4 views today

বিনোদন ডেস্ক::
বলিউড অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তুলে বলিউডপাড়াকে গরম করে ফেলেছেন বলিউড অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। তাঁর অভিযোগ, ২০০৮ সালে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির শুটিং চলাকালে নানা তাঁকে যৌন হেনস্তা করেছিলেন। এবার আর মৌখিক নয়, মুম্বাই পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দিলেন তনুশ্রী।

ইতিমধ্যেই মুম্বাই পুলিশ ঘটনার সত্যতা জানতে তদন্ত শুরু করেছে।

নানা পাটেকার রাজস্থানের জয়সালমারে ‘হাউসফুল-৪’ ছবির শুটিং থেকে শনিবার (৬ সঅক্টোবর) মুম্বাই বিমানবন্দরে নামার পর সংবাদকর্মীরা তাঁকে তনুশ্রীর অভিযোগের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করেন। জয়সালমার বিমানবন্দরে তাঁকে এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলেও তিনি উত্তর দেননি। যা হোক, মুম্বাইয়ে নামার পর তিনি বলেন, ‘যা বলার ১০ বছর আগেই বলেছি। মিথ্যা মিথ্যাই। শিগগিরই আমি সংবাদ সম্মেলন করব।’

‘আশিক বানায়া আপনে’ খ্যাত অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত গত মাসে জুম টিভিতে ১০ বছর আগে ঘটে যাওয়া যৌন হেনস্তার ব্যাপারে মুখ খোলেন । তিনি এ-ও বলেন, ওই সময় ছবির পরিচালককে সব বলা হলেও তিনি কিছুই করেননি। শুটিং সেট থেকে তিনি চলে যান।

তখন তিনি আরও বলেন, ‘সবাই জানেন, নানা পাটেকার সব সময় নারীকে অসম্মান করতেন। ইন্ডাস্ট্রির মানুষ জানে, তিনি অভিনেত্রীদের গায়ে হাত তুলেছেন, হেনস্তা করেছেন। নারীর প্রতি তাঁর আচরণ সব সময়ই বাজে ছিল, কিন্তু এ ব্যাপারে কখনোই লেখা হয়নি।’

নানা পাটেকারে বিরুদ্ধে অভিযোগ করে ক্ষান্ত হননি তনুশ্রী, অভিযোগ করেছেন পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রীর বিরুদ্ধেও। তিনি অভিযোগ করেন, ২০০৫ সালে ‘চকলেট : ডিপ ডার্ক সিক্রেটস’ ছবির শুটিং চলাকালে সহ-অভিনেতা ইরফান খানের সামনেই বিবেক তাঁকে পোশাক খুলে নাচতে বলেছিলেন।

তনুশ্রীর অভিযোগের পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে নানা ও বিবেক দুজনই তনুশ্রীর অভিযোগ নাকচ করে দিয়ে ক্ষমা চাইতে আইনি নোটিশ পাঠান। দুই নোটিশ পাওয়ার কথা স্বীকার করে তনুশ্রী দত্ত বলেন, ‘নিপীড়ন, অপমান ও অবিচারের বিরুদ্ধে মুখ খোলায় তাঁকে এখন মূল্য দিতে হচ্ছে।’

তনুশ্রীর অভিযোগের পর বলিউডে তোলপাড় শুরু হয়। বলিউডের অধিকাংশ তারকাই তনুশ্রীকে সমর্থন করেছেন। কেও কেও আবার চুপ আছেন বিষয়টি নিয়ে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  • 14
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    14
    Shares