ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের অর্থসাহায্য বাতিলের ঘোষণায় যুক্তরাষ্ট্র

29 total views, 1 views today

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
জাতিসংঘের ফিলিস্তিনি শরণার্থী সংস্থার সকল অর্থ সাহায্য বাতিলের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে বিবিসি। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর এক বিবৃতিতে ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের জন্য পরিচালিত জাতিসংঘের ন্যাশনাল রিলিফ এন্ড ওয়ার্কস এজেন্সিকে (ইউএনআরডব্লিউওএ) ‘অগ্রহণযোগ্য ত্রুটিপূর্ণ’ উল্লেখ করে একে দেয়া অর্থ সাহায্য বাতিলের ঘোষণা দেয়।

এ সম্পর্কে ওই দপ্তরের মুখপাত্র হিদার নোয়ার্ট বলেন, মার্কিন প্রশাসন বিষয়টি ‘গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ’ করে দেখার পর এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে যে, ‘ইউএনআরডব্লিউওএ’র জন্য আর কোনো অতিরিক্ত অর্থ সাহায্য দেয়া হবে না।’ এদিকে ফিলিস্তিনি নেতা মাহমুদ অঅব্বাসের এক মুখপাত্র যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বলেছেন, এই পদক্ষেপ ফিলিস্তিনি জনগনের জন্য ‘অপমানজনক’।

মুখপাত্র নাবিল আবু রুদেইনা সংবাদ মাধ্যম রয়টার্সকে বলেন, ‘এই ধরনের শাস্তি দিয়ে কোনো কিছুই বদলাতে পারবে না যুক্তরাষ্ট্র। আর এর মাধ্যমে এই অঞ্চলের বিবাদ নিরসনেরও কোনো সমাধান হবে না।’ তিনি যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তকে ‘জাতিসংঘ প্রস্তাবের লঙ্ঘণ’ বলেও উল্লেখ করেছেন।

ইউএনআরডব্লিউওএ কি?
১৯৪৮ সালে আরব-ফিলিস্তিনি যুদ্ধের কারণে গৃহহীন হাজার হাজার ফিলিস্তিনি শরণার্থীর দেখভালের জন্য গঠিত হয়েছিল জাতিসংঘের এই সংস্থাটি। তারা মধ্যপ্রাচ্যের ৫০ লক্ষাধিক লোকজনকে স্বাস্থ্য ও শিক্ষাসহ বিভিন্ন মানবিক সহায়তা দিয়ে থাকে। এখানে বড় ধরনের অর্থ সহায়তা দিয়ে আসছিলো যুক্তরাষ্ট্র। জাতিসংঘের এই সংস্থাটির প্রায় ৩০ ভাগ তহবিল সরবরাহ করতো যুক্তরাষ্ট্র।

২০১৬ সালেও তারা এখানে ৩৬৮মিলিয়ন ডলার দিয়েছিলো। তবে চলতি বছরের জানুয়ারিতে ট্রাম্প প্রশাসন ইউএনআরডব্লিউও ‘কে মাত্র ৬০ মিলিয়ন ডলার দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। এখনও বাকি আছে ৬৫ মিলিয়ন। তবে শুক্রবারের ওই ঘোষনার পর ওই ৬৫ মিলিয়ন ডলার বাতিল করা হবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •