ছাত্রের উপর শিক্ষকের এসিড নিক্ষেপ এর শাস্তির দাবিতে জেলা প্রশাসকের কাছে স্বারকলিপি

63 total views, 1 views today

আজিজুল ইসলাম সজীব :: হবিগঞ্জ টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্রের গায়ে এসিড ছুড়ে ঝলসে দেয়ার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আহত ছাত্র মঈন উদ্দিনের পিতা ফুল মিয়া বাদী হয়ে হবিগঞ্জ সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। রবিবার দুপুরে শিক্ষক আব্দুল কাইয়ুমকে আসামী করে এসিড নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলাটি দায়ের করা হয়।

এদিকে, পুলিশ আটক শিক্ষক আব্দুল কাইয়ুমকে আদালতে হাজির করলে বিচারক জামিন না মঞ্জুুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

অপরদিকে, শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করে শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ করেছে। রবিবার দুপুরে শিক্ষার্থীরা শহরের ধুলিয়াখাল সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এসময় যান চলাচল বন্ধ থাকে। পরে পুলিশ এসে আন্দোলনকারীদের সাথে আলোচনা করে যান চলাচল স্বাভাবিক করেন। এছাড়াও শিক্ষার্থীরা দোষী শিক্ষকের ফাসি দাবী করে জেলা প্রশাসকের কাছে স্বারকলিপি প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, শনিবার দুপুরে নবম শ্রেণীর রসায়ন ক্লাস চলার সময় উক্ত বিভাগের ছাত্র মঈনুদ্দিন দুষ্টুমির ছলে টেবিলে হাত দেয়। এতে রসায়ন বিভাগের শিক্ষক আব্দুল কাইয়ুম রাগের মাথায় হাতে থাকা এসিড ছুড়ে মারেন মঈনুদ্দিনের উপর। পরে অন্যান্য ছাত্র ও স্থানীয়রা এসে তাকে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। এসিডে তার পিঠের অংশ ঝলসে যায়। পরে এ ঘটনা জানাজানি হলে ক্ষোভে ফেটে পড়েন শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী। এসময় ক্ষব্ধ শিক্ষার্থীরা স্কুলের কয়েকটি কক্ষ ভাংচুর ও রাস্তা অবরোধ করে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল আলমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

পরবর্তীতে পুলিশ ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। আহত ছাত্র মঈনুদ্দিন সদর উপজেলার বড় বহুলা গ্রামের ফুল মিয়ার ছেলে। সে ওই প্রতিষ্ঠানের ফার্ম মেশিনারীজ বিভাগের ছাত্র।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •