অনূর্ধ্ব ১২ শিশু-ধর্ষণে ফাঁসি, বিল পাস লোকসভায়

165 total views, 2 views today

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::   ভারতে ১২ বছরের কম বয়সী শিশু-ধর্ষকদের মৃত্যুদণ্ড সংক্রান্ত বিল পাস হয়েছে লোকসভায়। গতকাল সোমবার নিম্নকক্ষের অধিকাংশ সদস্যের মতামতের ভিত্তিতে বিলটি পাস হয়। যদিও বিরোধীদের কয়েকজন এই বিলে আরও সংশোধনী আনার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু তা খারিজ হয়ে যায়।

১২ বছরের কম বয়সী শিশুকে ধর্ষণ করলে ধর্ষকের ন্যূনতম ২০ বছরের জেল এবং সর্বোচ্চ ফাঁসির সাজা দেয়ার জন্য বিশেষ অর্ডিন্যান্স পাস হয়েছিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়। গত এপ্রিলে পাস হওয়া এই অর্ডিন্যান্সে সাজা বাড়ানোর পাশাপাশি ধর্ষণ মামলার তদন্ত এবং বিচারের ক্ষেত্রে সময়সীমাও নির্দিষ্ট করে দেয়া হয়। পাস হওয়া অর্ডিন্যান্সটি ৬ মাসের মধ্যে সংসদে বিল আকারে পেশ করতে হতো। সেই মতো এ দিন লোকসভায় পেশ করা হয় বিলটি এবং তা পাস হয়।

এ দিন ভোটাভুটির আগে বিলটি নিয়ে প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে বিতর্ক চলে লোকসভায়। এসময় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কিরেন রিজিজু বলেন-‘শিশুকন্যা ও বালিকাদের সুরক্ষায় একটা কঠোর আইনের প্রয়োজন। ভারতীয় দণ্ডবিধিতে মহিলা-ধর্ষণের বিরুদ্ধে কড়া শাস্তির কথা বলা হলেও, ১২-১৬ বছরের কম বয়সী শিশু-কিশোরীদের ধর্ষণ ও গণধর্ষণে দোষীদের কঠোর সাজার কথা বলা নেই। সম্প্রতি শিশুদের উপর নারকীয় অত্যাচারের একাধিক ঘটনা দেশের ভাবাবেগে চরম আঘাত করেছে। যার ফলে, ১২-১৬ বয়সীদের উপর ধর্ষণে দোষীদের চরম শাস্তি দেয়াটা প্রয়োজন হয়ে পড়েছে।’

উল্লেখ্য, সম্প্রতি জম্মু-কাশ্মীরের কাঠুয়া ও উত্তরপ্রদেশের উন্নাওকাণ্ডের পর, ভারতজুড়ে বাড়তে থাকা ধর্ষণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। কাঠুয়ায় নৃশংস ঘটনার ফলে শিশু-ধর্ষকদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করতে তড়িঘড়ি অপরাধমূলক আইন (সংশোধনী) অর্ডিন্যান্স জারি করে কেন্দ্র।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •