বিশ্বনাথে সন্তানসহ নিখোঁজ গৃহবধূ মৌলভীবাজারে উদ্ধার

নিউজ ডেস্ক:: বিশ্বনাথ থেকে শিশু সন্তান’সহ নিখোঁজ গৃহবধূ রুকশানা বেগমকে (২২) মৌলভীবাজার থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজের ৩৪ দিন পর শনিবার মৌলভীবাজার পৌর শহরের ধড়কাপন এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ। উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে রুকশানার পিতা আতাউর রহমান শনিবার রাত সাড়ে ১২টায় জানান, তিনি মেয়েকে নিয়ে বিশ্বনাথ থানায় অবস্থান করছেন।

বিশ্বনাথ উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের ছত্রিশ গ্রামের আতাউর রহমানের মেয়ে ও একই উপজেলার লামাকাজী ইউনিয়নের মাধবপুর গ্রামের রিয়ান উদ্দিনের স্ত্রী রুকশানা বেগম গত ২৭ মে ২ বছর বয়সী শিশু মুরছালিন রহমানকে সাথে নিয়ে স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি যাওয়ার জন্য বের হন। সকল আত্মীয়স্বজনের বাড়ি’সহ সম্ভাব্য সকল জায়গায় খোঁজাখুঁজির পর কোথাও না পেয়ে নিখোঁজ গৃহবধূর পিতা গত ১৪ জুন বিশ্বনাথ থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন (ডায়েরি নং-৭৫৯, তাং-১৪/০৬/১৮)। এরপর গত শুক্রবার একটি দৈনিক পত্রিকায় নিখোঁজের সংবাদটি প্রকাশিত হয়।

উদ্ধারের পর রুকশানা পুলিশকে জানান, দীর্ঘদিন ধরে রুকশানা ও তার স্বামী শহিদের মধ্যে পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সমস্যা চলছে। এক পর্যায়ে গত ১০ রমজান রুকশানা স্বামীর উপর অভিমান করে বাবার বাড়িতে যাওয়ার জন্য বের হয়ে পথে একজন পরিচিত লোককে পান। ওই লোকের পরামর্শে রুকশানা বাবার বাড়িতে না গিয়ে ছেলেকে নিয়ে মৌলভীবাজার চলে যান এবং একটি বাসায় গৃহকর্মীর কাজ শুরু করেন। রুকশানা নিখোঁজের কয়েক দিন পর হঠাৎ রুকশানার স্বামী শহিদের মোবাইলে অপরিচিত একটি নম্বর থেকে ফোন আসে। পরবর্তীতে শহিদ খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, মোবাইল মালিকের বাড়ি মৌলভীবাজার এবং তার স্ত্রী রুকশানা সেখানে একটি বাড়িতে কাজ করেন। এমন খবরে শহিদ মৌলভীবাজার গিয়ে একজন রিকশা চালকের সহায়তায় রুকশানার সন্ধান পান এবং মৌলভীবাজার মডেল থানায় পুলিশকে সাথে নিয়ে ওই বাড়ি থেকে রুকশানাকে উদ্ধার করেন।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.