লুঝনিকির মূর্ছনায় দুনিয়া মাত

107 total views, 1 views today

স্পোর্টস ডেস্ক :: সুরের মূর্ছনা ও নৃত্যের তালে তালে পর্দা উঠলো বিশ্বকাপ আসরের। গতকাল মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে খেলা শুরুর আগে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মঞ্চ মাতান বৃটিশ রক মিউজিক তারকা রবি উইলিয়ামস। অনুষ্ঠানে পারফর্ম করেন জনপ্রিয় রুশশিল্পী আইদা গারিফুলিনাও। এ সময় মাঠে উপস্থিত হন দুইবারের বিশ্বকাপজয়ী ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি রোনাল্ডো নাজারিও ডি লিমা। মাঠে অংশগ্রহণকারী ৩২ দেশের জাতীয় পতাকা বহন করেন নৃত্যশিল্পীরা। অনুষ্ঠানের শুরুতে বিশ্বকাপ ট্রফি তুলে ধরেন ২০১০’র চ্যাম্পিয়ন স্পেনের অধিনায়ক ইকার ক্যাসিয়াস ও রুশ সুপার মডেল নাতালিয়া বদিয়ানোভা।

সাধারণত বিশ্বকাপের থিম সংয়ের গায়করা পারফর্ম করে থাকেন আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে।
গত ক’আসরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মঞ্চ মাতান পপশিল্পী রিকি মার্টিন, শাকিরা, জেনিফার লোপেজ, ব্যান্ড পিট বল। তবে প্রথা ভাঙলো এবার। এবারের বিশ্বকাপের থিম সং গেয়েছেন মার্কিন তারকা উইল স্মিথ, পুয়ের্তোরিকান নিকি জ্যাম ও আলবেনিয়ান শিল্পী এরা এসত্রেফি। প্রতিবছর কিকঅফের একঘণ্টা আগে শুরু হয় বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। তবে এবারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের ব্যপ্তি ছিল ৩০ মিনিট। বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হয় অনুষ্ঠান। সারা বিশ্বের বিভিন্ন ঘরানার ক্লাসিক্যাল মিউজিককে প্রাধান্য দেয়া হয় এবার। অনুষ্ঠানে প্রায় ৫০০ নৃত্যশিল্পী পারফর্ম করেন। তারা রাশিয়ান সংস্কৃতি তুলে ধরেন। মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে বসে অনুষ্ঠান উপভোগ করেন ৮০ হাজার দর্শক।

একই সময়ে শহরের বিখ্যাত রেড স্কয়ারে কনসার্টের আয়োজন করা হয়। নাচ-গান শেষে এবারের বিশ্বকাপ আসরের উদ্বোধন ঘোষণা করেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। পরে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্ব ফুটবল সংস্থার (ফিফা) সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো। ১৯৯৮ সালে প্রকাশিত নিজের সুপারহিট ‘লেট মি এন্টারটেইন ইউ’ গান দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করেন ৪৪ বছর বয়সী রবি উইলিয়ামস।

এ সময় মঞ্চে হাজির হন ১৯৯৪ ও ২০০২’র বিশ্বকাপজয়ী ব্রাজিলিয়ান তারকা রোনাল্ডো। পরে লুঝনিকি স্টেডিয়ামকে সুরের মূর্ছনায় মাত করেন রুশ প্রখ্যাত বীণাবাদক আলেকজান্ডার বলদাশেভ। এরপর রবি উইলিয়ামসের সঙ্গে দ্বৈত সংগীতে মঞ্চ মাতান রুশ তারকা আইদা। ৩০ মিনিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বিশ্বব্যাপী টেলিভিশনে উপভোগ করেন ৫০০ মিলিয়ন দর্শক। লুঝনিকি মাঠে পরে আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয় স্বাগতিক রাশিয়া ও সৌদি আরব। আসরের ৮৮ বছরের ইতিহাসে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে এশিয়ার কোনো দেশকে খেলতে দেখা গেল এই প্রথমবার।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •