বানিয়াচঙ্গে সদরে বজ্রপাতে ২ ব্যক্তি নিহত : আহত ৪

নিউজ ডেস্ক:: বানিয়াচঙ্গে ও সদরে পৃথক বজ্রপাতে ২ যুবক নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো ৪ জন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতরা হলো বানিয়াচং উপজেলার মুরাদপুর ইউনিয়নের মর্দনপুর গ্রামের মোতাহির মিয়ার ছেলে জুবায়ের মিয়া (২৪) ও চুনারুঘাট উপজেলার, জোয়ালভাঙ্গা গ্রামের মনাই মুন্ডার ছেলে সুজন মন্ডা (৩০)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় মুরাদপুর হাওরে মাছ ধরে বাড়িতে ফেরার পথে বৃষ্টির সাথে বজ্রপাত শুরু হলে তার উপর বজ্রপাত ঘটলে সে আহত হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক দেবাশ্বীস রায় মৃত ঘোষনা করেন। বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুন খন্দকার যুবকের নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অপরদিকে মঙ্গলবার দুপুরে সদর উপজেলার নোয়াখাল হাওরে ধান কাটতে গিয়ে ৫ জন বজ্রপাতে আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে সুজন মুন্ডা মারা যান। হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক দেবাশ্বীস ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

এদিকে শহরের ফায়ার সার্ভিস রোড এলাকায় বজ্রপাতে গ্যাসের মিটার পুড়ে গেছে। ফায়ার স্টেশন কাছে থাকায় বড় ধরণের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছেন এলাকাবাসী। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় হবিগঞ্জ ফায়ার স্টেশনের পাশর্^বর্তী এলাকায় দেওয়ান মহিবুর রহমান নামক এক ব্যক্তির বাসায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। হবিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ সহকারী পরিচালক মোঃ মনিরুজ্জামান জানান, মঙ্গলবার সকালে বিকট শব্দে একটি বজ্রপাত ঘটলে উল্লেখিত বাসার গ্যাসের মিটারে আগুন লেগে মিটারটি পুড়ে যায়। এক পর্যায়ে আগুন গ্যাস মিটার থেকে বিদ্যুৎ সংযোগে লেগে যায়। সাথে সাথে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •