বিশ্বম্ভরপুরে শিশুকে যৌন নির্যাতনের ঘটনা ১০ হাজার টাকায় রফা!

নিজস্ব প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জে বিশ্বম্ভরপুরে শিশুকে যৌন নির্যাতনের ঘটনা ১০ হাজার টাকায় আপোষ রফা করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের পিরিজপুর গ্রামে।

ভিকটিমের স্বজনরা জানান, গত ২১ এপ্রিল বিকেলে বাড়ির উঠোনে খেলা করছিল শিশু কন্যা (৭)। এসময় প্রতিবেশী নয়ন দাস (২০) মুঠোফোনে ভিডিও গান দেখানোর প্রলোভন দেখিয়ে শিশুটিকে স্থানীয় বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে নিয়ে যৌন নির্যাতন করে। পরে শিশুটি বাড়ি এসে তার মায়ের কাছে বিষয়টি জানালে তাৎক্ষণিক তাকে গ্রামের হোমিও চিকিৎসকের কাছে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে সুনামগঞ্জের একটি প্রাইভেট চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানে মেয়েটিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

অপরদিকে, স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল হেকিম ও হরিপদ সেন-এর মধ্যস্থতায় গত বুধবার রাতে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে সালিশ অনুষ্ঠিত হয়। সালিশে শিশু কন্যার পরিবারকে নগদ ১০ হাজার টাকা ‘ক্ষতিপূরণ’ দেয়া হয়। তাছাড়া চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনে আরো টাকা দেওয়া হবে বলে সালিশ সিদ্ধান্ত দেয়।

শিশুটির মা জানান, আমরা মামলার প্রস্তুতি নিলে স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ কয়েকজন বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করার কথা বলে। গত বুধবার সালিশ করে বখাটেকে ১০ হাজার টাকা জারিমানা করা হয়। ওই টাকা আমাদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে ইউপি সদস্য আব্দুল হেকিমের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। বিশ্বম্ভরপুর থানার ওসি (তদন্ত) নবগোপাল দাস জানান, এ বিষয়ে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.