সিরিয়ায় ৫ হাজার ট্রাক অস্ত্র পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র: এরদোগান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা বিনামূল্যে কুর্দি গেরিলাদের অস্ত্র দিচ্ছে। এটি তুরস্কের নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে।

সম্প্রতি তুর্কি এনটিভিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এরদোগান বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা তুরস্কের কাছে অস্ত্র বিক্রির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে। অথচ তারা নিষিদ্ধ ঘোষিত কুর্দি গেরিলাদের অস্ত্র জোগান দিচ্ছে।

তিনি বলেন, আমরা অর্থ দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে অস্ত্র কিনতে পারি না। অথচ দুঃখজনকভাবে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোকে বিনামূল্যে সেই অস্ত্র ও গোলাবারুদ দিচ্ছে। অতএব হুমকিটা কোথা থেকে আসছে? এ হুমকি প্রাথমিকভাবে আসছে কৌশলগত মিত্রদের কাছ থেকে।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, সিরিয়ায় অস্ত্রের চালান পাঠানো অব্যাহত রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে তারা পাঁচ হাজার ট্রাক অস্ত্র পাঠিয়েছে।

সিরিয়ার কুর্দি পিপলস প্রোটেকশন ইউনিট বা ওয়াইপিজিকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে মনে করে তুরস্ক। অন্যদিকে তুরস্কের মিত্র যুক্তরাষ্ট্র এ সংগঠনকে অস্ত্র ও প্রশিক্ষণ দিয়ে সহায়তা করে আসছে এবং সিরিয়া এদেরকে মিত্র হিসেবে ব্যবহার করছে। গেল বছরের ডিসেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ওয়াইপিজিকে ৩৯ কোটি ৩০ লাখ ডলারের অস্ত্র দেয়ার অনুমোদন দিয়েছেন।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.