স্কুল ছাত্রী একমাস পর উদ্ধার : প্রেমিক আটক

নিউজ ডেস্ক:: শায়েস্তাগঞ্জের জগতপুর গ্রামে নানার বাড়ি থেকে আফসানা আক্তার লুবনা (১৩) নামে স্কুল ছাত্রীকে এক মাস পর উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকেলে ওই কিশোরীকে অসুস্থ অবস্থায় সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সে বানিয়াচং উপজেলার শাহপুর গ্রামের জহুরুল ইসলামের কন্যা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, লুবনা দীর্ঘদিন ধরে তার নানার বাড়ি শায়েস্তাগঞ্জ জগতপুর গ্রামে বসবাস করে স্থানীয় বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৭ম শ্রেণিতে লেখাপড়া করে আসছে। সম্প্রতি স্কুলে আসা যাওয়ার সুবাধে পরিচয় হয় একই এলাকার সাইফুল আলম ওরফে শাহ আলম নামে এক যুবকের সাথে। তাদের মোবাইল ফোনে কথা বলে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক সময় একে অপরকে কাছে পেতে মরিয়া হয়ে উঠে। বিভিন্ন জায়গায় বেড়াতে গিয়ে গোপন অভিসারে মিলিত হয়।

গত ১১ মার্চ সকাল ৯টায় লুবনা তার প্রেমিক শাহ আলমের সাথে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমায়। এক পর্যায়ে সদর কোর্টে এফিডেভিটের মাধ্যমে বিয়ে কাজ সম্পন্ন করে। এরপর থেকে নোয়াপাড়া এলাকার পারভিন বেগমের ঘর ভাড়ায় নিয়ে বসবাস করতে শুরু করে। এ ঘটনার পর ছাত্রীর মামা শামীম আহমেদ শাহ আলমকে আসামী করে শায়েস্তাগঞ্জ থানায় একটি অপহরনের মামলা দায়ের করেন।

তবে কিশোরীর দাবী অপহরণ নয় স্বেচ্ছায় প্রেমিকের সাথে পালিয়ে গিয়েছিল এবং….।
মামলার প্রেক্ষিতে গত একমাস চেষ্টার পর সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই আমিনুল ইসলামসহ একদল পুলিশ প্রেমিক জুটিকে নোয়াপাড়া এলাকার একটি ঘর থেকে আটক করে। মঙ্গলবার বিকেলে ভিকটিমকে সদর হাসপাতালে ধর্ষণের অভিযোগে ভর্তি করা হয়।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •