সৌদিতে কর্মসংকটে বাংলাদেশী অভিবাসীরা

70 total views, 1 views today

নিউজ ডেস্ক:: সৌদি আরবে কর্মরত বাংলাদেশী অভিবাসীদের সমস্যা মোকাবেলায় ও তাদের অধিকার রক্ষায় রিয়াদকে একটি চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছে ঢাকা। ১৪ মার্চ রিয়াদে অনুষ্ঠিত যৌথ কমিটির এক বৈঠকে ওই প্রস্তাব দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এ ব্যাপারে সৌদি আরবে বাংলাদেশ মিশনের উপপ্রধান মো. নজরুল ইসলাম বলেন, ‘চুক্তিটি বিবেচনা করবে বলে বাংলাদেশকে নিশ্চিত করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। বাংলাদেশের অভিবাসী শ্রমিকরা যে সমস্যায় আছে, তারও সমাধান করার কথা জানিয়েছে তারা।’

তিনি জানান, কাজের নিরাপত্তাসহ কর্মপরিবেশ উন্নত করা ও বাংলাদেশীদের ন্যায্য পারিশ্রমিক দেয়ার প্রস্তাব করা হবে চুক্তিতে।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, বাংলাদেশ থেকে যাওয়া অনেক অভিবাসীই সৌদি আরবে কাজ পাচ্ছে না। নারী শ্রমিকদের শারীরিক ও যৌন নির্যাতন করা হয়। এছাড়া বিভিন্ন রিক্রুটিং এজেন্সির অনৈতিক কাজের কারণে অভিবাসন খরচও অনেক বেড়েছে বলে জানিয়েছে তারা।

এ কারণে নিরাপদ অভিবাসন নিশ্চিত করাও সম্ভব হচ্ছে না। এমনিতেও সম্প্রতি সৌদি আরবে অভিবাসী শ্রমিক যাওয়া উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে।

ব্যুরো অব ম্যান পাওয়ার এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড ট্রেনিংয়ের (বিএমইটি) তথ্যমতে, চলতি বছরের প্রথম দুই মাসে সৌদি আরবে শ্রমিক গিয়েছে ৬৬ হাজার ৬৮০ জন, যা ২০১৭ সালের একই সময়ে ছিল ৯৪ হাজার ৫২৮ জন।

সংস্থাটির প্রতিবেদন মতে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় শ্রমবাজার সৌদি আরবে গত বছর পাঁচ লাখ ৫৫ হাজার শ্রমিক গিয়েছে। তবে তাদের মধ্যে ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ এখনো কাজের অনুমতি পায়নি।

এছাড়া ৮৭ হাজার নারী কর্মীর অনেককেই বিভিন্নভাবে হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে। জটিলতার কারণে অনেকেই দেশে ফিরে আসছে। শাহজালাল বিমানবন্দরের তথ্যমতে, গত বছর সৌদি আরবে যাওয়া ৫০ হাজার ১৪৮ জনই ফিরে এসেছে।

সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাস জানিয়েছে, গত বছর কমপক্ষে ৪০ হাজার বাংলাদেশী দেশে ফিরে এসেছে। তাদের বেশিরভাগই এসেছে কাজের অনুমতি না পেয়ে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    6
    Shares