কবি ডাঃ রাসবিহারী দত্ত আর নেই…

আবু নছর আব্দুল হাই ছিদ্দেকী (ভারত ):: প্রয়াত হলেন বাংলা শিশু সাহিত্যের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র তথা নিখিল ভারত শিশু সাহিত্য সংসদের সর্বভারতীয় সদস্য ড. রাসবিহারী দত্ত। পেটে জল জমা, হিমগ্লোবিন কমে যাওয়া ও প্রেসার আপ ডাউন ইত্যাদি নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে আজ সকাল ৫.০৫ মিনিটে ড. রাসবিহারী দত্ত শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন, দমদম নাগেরবাজার আই এল এস হসপিটালে। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর।

ভারতবর্ষের বৃহত্তম শিশু সাহিত্য সংগঠন ‘নিখিল ভারত শিশু সাহিত্য সংসদ’এর সর্বভারতীয় সম্পাদক হসেবে পরিচালনা করেন তিনি তিনি পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্থ থেকে তুলে এনেছেন একঝাক তরুণ ও খুদে লেখক।

ড.রাসবিহারী দত্তের স্বরচিত গ্রন্থের সংখ্যা শতাধিক। এছাড়া তিনি অসংখ্য সংকলন সম্পাদনা করে গেছেন।

তিনি কর্মজগতে ছিলেন বঙ্গবাসী কলেজে দর্শন বিভাগের অধ্যাপক ও প্রধান। পরবর্তী কালে তিনি রামনগর কলেজের অধ্যক্ষ হন।

তিনি ছিলেন ভারতীয় কমিউনিস্ট পার্টির মার্কসবাদী রাজ্য স্তরের সাংস্কৃতিক শাখার পার্টি সদস্য। রাজনীতি সমাজনীতি ও সাহিত্য সাংস্কৃতিক জগতে তিনি তৈরি করেছিলেন অসংখ্য অনুরাগী। তার মৃত্যু সংবাদ শুনে সাহিত্য সাংস্কৃতিক জগতের সাথে যুক্ত অসংখ্য মানুষ তাকে শ্রদ্ধা জানাতে হাসপাতাল ও বাড়ি ছুটে আসে। মৃত্যুকালে তিনি রেখে যান তার স্ত্রী ও একমাত্র পুত্র ঋতর্ষী দত্ত।

উনার মৃত্যুতে গভীর শোকাহত নিখিল ভারত শিশু সাহিত্য সংসদের সর্বভারতীয় সদস্য এম রিয়াজুল আজহার লস্কর গভীরভাবে শোকাহত। তিনি বলেন আজ একজন অভিভাবক হারালাম। গত ২৭ অগাস্ট ২০১৭ তারিখে কলকাতায় আয়োজিত সারা বাংলা ছড়া উতসবে উনার হাত থেকে ‘আলোর ফুলকি সম্মাননা২০১৭ ‘নিয়েছিলাম।

আমার জীবনের এক সেরা অনুপ্রেরণা তিনি। তিনি আমার হৃদয়ে থাকবেন… বরাক উপত্যকার তরুণ কলামিস্ট আবু নছর আব্দুল হাই সিদ্দিকি আজ কলকাতায় মৃতের বাড়িতে গিয়ে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। তিনি বলেন,” তাহার মৃত্যুতে বাঙ্গালি জাতি অমূল্য সম্পদ হারিয়েছে যা কখনো পুরণ হবার নয় ।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.