ফয়জুর ও এনামুলকে মুখোমুখি করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে

নিউজ ডেক্স:: সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, লেখক অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার সময় হামলাকারী ফয়জুল রহমান ওরফে ফয়জুলের ভাই এনামুল কোথায় ছিলেন তা জানার চেষ্টা করছেন তদন্ত কর্মকর্তারা।

এছাড়া হামলার আগে পরে ফয়জুলের সাইকেল, মোবাইল ও ট্যাব নিয়ে কেন পালালো এনামুল এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে তদন্তকর্মকর্তা শাবিপ্রবির সিসিটিভির ফুটেজ বিশ্লেষণ করছেন। তাছাড়া শিগগির দু’ভাইকে মুখোমুখি জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার গাজীপুর থেকে এনামুলকে আটক করা হয়।

তদন্তকারী একটি সূত্র জানায়, সন্দেহ করা হচ্ছে, অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনা আগে থেকেই জানতো এনামুল। হয়তো সেই ছিলো এ হামলার ব্যাকআপ দলের সদস্য। তা না হলে হামলার পর এতোকিছু থাকতে ফয়জুলের ব্যবহৃত মোবাইল ও ট্যাব নিয়ে কেনো পালালো কেন এনামুল?

একটি সূত্র জানায়, হামলার দিন ফয়জুল সকালে ও দুপুরে ২ বার শাবিপ্রবিতে হেটে হেটে প্রবেশ করে বলে নিশ্চিত হয়েছেন তদন্তকারীরা। তারা শাবিপ্রবির সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষণ করে ফয়জুলের প্রবেশের বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছেন। এনামুল আটকের পর ফের সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষণ করা হচ্ছে, ওইদিন এনামুল শাবিপ্রবিতে প্রবেশ করেছিলো কী না।

মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, হামলাকালে ফয়জুল যে সব কৌশল প্রয়োগ করেছে তা খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। র‌্যাব তাকে উদ্ধার করার সময় সাইকেলের চাবি পেলেও শাবিপ্রবির সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষণে তদন্তকারীরা দেখেছেন ফয়জুল হেটে প্রবেশ করেছে। এছাড়া তার সাথে কোনো মোবাইল ফোন না থাকাটাও সুগভীর পরিকল্পনা হিসেবেই দেখছেন তারা।

এছাড়া ঘটনার পর পর ফয়জুলের পরিবারের আত্মগোপন ও তার ব্যবহৃত ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসগুলো নিয়ে ভাই এনামুলের পালিয়ে যাওয়া এক সূত্রে মেলাতে চাচ্ছেন তদন্তকারীরা। তদন্ত সংশ্লিষ্টদের ধারণা এ সকল প্রশ্নের জবাব মিললে অনেক রহস্যের পর্দা উন্মোচন হয়ে পড়বে। এ কারণে ফয়জুল ও এনামুলের বাবা মাওলানা আতিকুর রহমান মা মিনারা বেগম, মামা ফজলুর রহমানের কাছ থেকেও তথ্য নেওয়া হচ্ছে। তাই ফয়জুর ও এনামুলকে মুখোমুখি করে জিজ্ঞাসাবাদ করার উদ্যোগও নিয়েছেন তদন্তকারীরা।

এদিকে হামলাকারীর সাথে কাদের উঠাবসা কিংবা চলাফেরা ছিলো তাদেরও নজরদারি করা হচ্ছে। অনেককে জিজ্ঞাসাবাদও করেছেন তদন্তকারীরা। ফয়জুল তার বাসা টুকেরবাজার শেখপাড়া এলাকায় কারোর সাথে না মিশলেও নগরীতে কিংবা তার সাবেক কর্মস্থলে তার কাছে কারা কারা যাতায়াত করতো তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া এনামুলের ব্যাপারেও খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের জালালাবাদ থানার ওসি ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বলেন, মামলাটি তদন্তাধীন। তদন্তের স্বার্থে আমরা সবকিছুই করছি। সম্ভাব্য সকল সূত্র কাজে লাগিয়ে হামলার নেপথ্যে কে বা কারা রয়েছে তা খুঁজে বের করা হবে। ম্যানুয়েলি কিংবা তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রকাশ্যে গোপনে তদন্ত চলছে। পাশাপাশি জিজ্ঞাসাবাদও অব্যাহত রয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্য বিশ্লেষণ করার পাশাপাশি সত্যতা যাচাই করছি আমরা।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশের আবেদনের প্রেক্ষিতে ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলাকারীর ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

এরআগে গত ৩ মার্চ শাবিপ্রবির মুক্তমঞ্চে একটি অনুষ্ঠানে পেছন থেকে অধ্যাপক জাফর ইকবালের ওপর হামলা চালায় ফয়জুল রহমান ওরফে ফয়জুল। এ ঘটনার ড. জাফর ইকবালকে প্রথমে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও পরে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •