শাবিতে শিক্ষকদের কর্মবিরতি

 নিউজ ডেক্স:: শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার প্রতিবাদে এবং অপরাধীদের শাস্তি দাবিতে কালো ব্যাজ ধারণ করে প্রতীকী অনশন ও কর্মবিরতি পালন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। শাবি শিক্ষক সমিতির ব্যানারে সোমবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর সোয়া ১টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন-২ এর সামনে এই কর্মবিরতি ও প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়।
শাবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদউদ্দন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ ইলিয়াস উদ্দীন বিশ্বাস, শিক্ষক সমিতির সভাপতি সৈয়দ হাসানুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক জহীর উদ্দিন আহমেদ, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক মো. রাশেদ তালুকদারসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকরা এই কর্মসূচিতে অংশ নেন।
অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ আমরা সবাই ক্যাম্পাসের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করব।’ বড় ধরনের আঘাত থেকে ড. জাফর ইকবাল রক্ষা পাওয়ায় তিনি সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ জানান।
সভাপতি সৈয়দ হাসানুজ্জামান বলেন, এই ক্যাম্পাসে মুক্তচিন্তা বন্ধ করে দেওয়া যাবে না। ক্যাম্পাসে নবীনবরণসহ সকল অনুষ্ঠান হবে নিয়মনীতি মেনেই। সকলের নিরাপত্তা নিশ্চিতককরণের স্বার্থে একটি নিরাপত্তা নীতি তৈরি করার দাবি ইতিমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে জানানো হয়েছে।
এর আগে সকালে শাবির কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা ক্যাম্পাসে মৌন মিছিল করেন। সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের এম এ ওয়াজেদ মিয়া (আইআইসিটি) ভবন থেকে শুরু হওয়া মিছিলটি ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে এসে শেষ হয়।
মৌন মিছিলে উপস্থিত শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘আমাদের প্রিয় জাফর ইকবাল স্যারের ওপর হামলার খুব দ্রুত বিচার হতে হবে। এটি শুধু স্যারের ওপর হামলা নয়, সারা দেশের সবার ওপর হামলা।’
এদিকে অধ্যাপক জাফর ইকবালের ওপর হামলা ও জড়িতদের শাস্তি দাবিতে মঙ্গলবার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার ভবনের সামনে থেকে একটি প্রতিবাদ র‌্যালি করার ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষক সমিতি। সোমবার প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচি থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। শাবির সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এএইচ বেলায়েত হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
প্রসঙ্গত, শনিবার বিকেলে শাবির মুক্তমঞ্চে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) ফেস্টিভ্যালের সমাপনী অনুষ্ঠান চলাকালে হামলার শিকার হন অধ্যাপক জাফর ইকবাল। অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় পেছন থেকে তার মাথায় ছুরিকাঘাত করা হয়।
হামলার পর গুরুতর আহত অবস্থায় ড. জাফর ইকবালকে প্রথমে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) আনা হয়।
কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •