‘১৪ বছর আমার দরজা খোলা রেখেছি, নির্বাচন আসছে আপনারাও খোলা রাখবেন’

নিউজ ডেস্ক:: তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ স্কুল শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেছেন, জীবনে বড় হতে হলে স্বপ্ন দেখতে হয়। স্বপ্নহীন মানুষ কোনো দিন লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে না। তবে শুধু স্বপ্ন দেখলে হবে না, সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রাণান্তর চেষ্টা করতে হবে।’

‘স্বপ্ন দেখার পাশাপাশি যদি তোমরা প্রচেষ্টাকে যুক্ত করতে পার, তবে তোমাদের অনেক স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নেবে। একজন শিক্ষার্থীর স্বপ্ন বাস্তবায়নের মাধ্যমে তাদের পিতা-মাতা তথা দেশের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে। তাই আমি শিক্ষার্থীদের অনুরোধ জানাব স্বপ্ন দেখতে।’

বুধবার দুপুরে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার চন্দ্রঘোনা আদর্শ বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদ সভাপতি মো. আবু তাহেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের উদ্বোধক ছিলেন সুখবিলাস ফিশারিজ অ্যান্ড প্ল্যান্টেশনের চেয়ারম্যান এরশাদ মাহমুদ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন- উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা স্বজন কুমার তালুকদার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতাউল গণি ওসমানী, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আকতার হোসেন খান, উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার সুমন শর্মা, শিক্ষানুরাগী ফরিদ আহমদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ, শেখর বিশ্বাস, যুবলীগ নেতা মো. শোয়েব, বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদ সদস্য মো. হাবিব, নিখিল মহাজন, ইস্তেকাফ আলম সাদিল, মো. ফোরকান সিকদার প্রমুখ।

স্বাগত বক্তব্য দেন বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আবু হেনা মোস্তফা কামাল এবং সঞ্চালনা করেন শিক্ষক আবদুল কাদের।

মন্ত্রী বলেন, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ভালো রেজাল্টের পাশাপাশি যেন তাদের খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক চর্চা, বিজ্ঞান চর্চা করানো হয়। স্কুলে যেন বিজ্ঞান মেলা করা হয়, সাংস্কৃতিক সপ্তাহ পালন করা হয়, বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। তাহলে একজন শিক্ষার্থী পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে গড়ে উঠার ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

অভিভাবকদের উদ্দেশে হাছান মাহমুদ বলেন, আমাকে আপনারা টানা তিনবার এমপি নির্বাচিত করার পর গত ১৪টি বছর আমি সবার জন্য আমার দরজা খোলা রেখেছি। নির্বাচন কাছে চলে এসেছে। আমি যখন আপনাদের দরজায় যাব, তখন আপনারাও আমার জন্য আপনাদের দরজাটি খোলা রাখবেন, সেই প্রত্যাশা করি।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *