ইউক্রেনের তিনটি গুরুত্বপূর্ণ বন্দরে কার্যক্রম শুরু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: তুরস্ক এবং জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় রাশিয়া ও ইউক্রেন খাদ্যশস্য রপ্তানির বিষয়ে ঐকমত্যে পৌঁছানোর পর দক্ষিণ ইউক্রেনের তিনটি বন্দরে ফের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

বুধবার থেকে ফের বন্দরে এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

ওডেসা, চারনোমরস্ক, পিভদেনিই বন্দর আপাতত খুলেছে। এখান থেকেই খাদ্যশস্য বোঝাই জাহাজ কৃষ্ণসাগরের পথ ধরে আফ্রিকার দিকে যাবে।

ইউক্রেন জানিয়েছে, জাহাজগুলোর সামনে পেছনে অ্যাসকর্ট জাহাজ থাকবে। তারাই নিরাপদ পথ দেখিয়ে খাদ্যবোঝাই জাহাজগুলোকে নিয়ে যাবে। বস্তুত অ্যাসকর্ট জাহাজগুলোতে অত্যাধুনিক যন্ত্র লাগানো থাকবে। যার সাহায্যে বোঝা যাবে, পানির নিচে কোথাও কোনো মাইন বা বাধা আছে কিনা।

তুরস্কের ইস্তানবুলে একটি যৌথ সমন্বয় সেন্টারও তৈরি করা হয়েছে। বুধবার তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী সেটির উদ্বোধন করে বলেন, গোটা বিশ্বের চোখ ওই সেন্টারের দিকে থাকবে। কর্মীদের সে কথা মনে রাখতে হবে।

ওই সমন্বয় সেন্টারের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমেই খাদ্যশস্য নিয়ে জাহাজগুলো কৃষ্ণসাগরে নামবে বলে তিনি জানান।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর পর ইউক্রেনের বন্দরগুলো বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। যার জেরে ইউক্রেনের খাদ্যশস্য বাইরে যেতে পারছিল না।

রাশিয়া দাবি করেছিল, ইউক্রেন কৃষ্ণসাগরে মাইন পেতে রেখেছে। ইউক্রেনের দাবি ছিল, রাশিয়া কৃষ্ণসাগরে অবরোধ তৈরি করেছে। দুই দেশের মধ্যে এ নিয়ে তীব্র বিতর্ক হয়েছে।

অন্যদিকে আফ্রিকাসহ একাধিক দেশে খাদ্য সংকট শুরু হয়। অবশেষে সেই সমস্যার একটি সাময়িক সমাধানসূত্রে পৌঁছানো গেছে। যদিও ইউক্রেনের অভিযোগ, এই পরিস্থিতিতেও রাশিয়া ওডেসার মতো বন্দরে মিসাইল হামলা চালাচ্ছে। ফলে বন্দরে কাজ করতে সমস্যা হচ্ছে।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.