ইউক্রেনের অনুরোধেই সেই রুশ জাহাজ আটক করেছে তুরস্ক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: কৃষ্ণ সাগর উপকূলে তুরস্ক রাশিয়ান পতাকাবাহী পণ্যবাহী জাহাজ  আটক করে ইউক্রেনের শস্য চুরির অভিযোগ তদন্ত করছে বলে জানিয়েছেন আঙ্কারার এক জেষ্ঠ্য কর্মকর্তা। বার্তা সংস্থা রয়টার্স সোমবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে রোববার ইউক্রেন থেকে শস্য বোঝাই করে নিয়ে যাওয়ার সময় একটি রাশিয়ার পণ্যবাহী জাহাজ আটক করে তুরস্ক।

এ ব্যাপারে ইউক্রেনের জাতীয় টেলিভিশনে তিনি বলেছিলেন, আমাদের সম্পূর্ণ সহযোগিতা রয়েছে। জাহাজটি বর্তমানে বন্দরের প্রবেশপথে দাঁড়িয়ে আছে। তুরস্কের শুল্ক কর্তৃপক্ষ জাহাজকে আটক করেছে।

সোমবার তদন্তকারী কর্মকর্তাদের একটি বৈঠকের পর জাহাজটির ভাগ্য নির্ধারণ করা হবে বলেও জানিয়েছিলেন তিনি।

এ ব্যাপারে ইউক্রেনের জাতীয় টেলিভিশনে তিনি বলেন, আমাদের সম্পূর্ণ সহযোগিতা রয়েছে। জাহাজটি বর্তমানে বন্দরের প্রবেশপথে দাঁড়িয়ে আছে। তুরস্কের শুল্ক কর্তৃপক্ষ জাহাজকে আটক করেছে।

সোমবার তদন্তকারী কর্মকর্তাদের একটি বৈঠকের পর জাহাজটির ভাগ্য নির্ধারণ করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে শুক্রবার রাশিয়ার দখলকৃত বার্দিয়ানস্ক বন্দর থেকে ইউক্রেনীয় শস্য বহনকারী রাশিয়ার পতাকাবাহী পণ্যবাহী জাহাজ ঝিবেক ঝোলিকে আটক করার জন্য ইউক্রেন তুরস্ককে অনুরোধ করেছিল বলে ইউক্রেনের এক কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন। এছাড়া রয়টার্স এ সংক্রান্ত নথিও দেখেছে।

ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা দেশটির নৌ প্রশাসনের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে জানান, ওই রুশ জাহাজ প্রায় সাড়ে চার হাজার টন শস্যের প্রথম প্রথম চালন নিয়ে যাচ্ছিল। ওই শস্য ইউক্রেনের বলে দাবি করেছিলেন তিনি।

এর আগেও রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেন থেকে শস্য চুরির অভিযোগ এনেছিল কিয়েভ।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.