‘৪২টি স্তম্ভ যেন স্পর্ধিত বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি’

নিউজ ডেস্ক:: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আজকে পদ্মার বুকে জ্বলে উঠেছে লাল নীল সবুজ সোনালী আলোর ঝলকানি। ৪২টি স্তম্ভ, এ স্তম্ভ যেন স্পর্ধিত বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বলেছিলেন, কেউ দাবায়ে রাখতে পারবা না। কেউ দাবায়ে রাখতে পারেনি। আমরা বিজয়ী হয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, তারুণ্যের কবি সুকান্তের ভাষায় তাই বলতে চাই, সাবাস বাংলাদেশ, এ পৃথিবী অবাক তাকিয়ে রয়। জ্বলে পুড়ে মরে ছারখার, তবু মাথা নোয়াবার নয়। আমরা মাথা নোয়াইনি, আমরা কখনও মাথা নোয়াব না। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কখনও মাথা নোয়াননি, মাথা আমাদের মাথা নোয়াতে শেখান নাই।

তিনি বলেন, ফাঁসির মঞ্চে দাঁড়িয়ে তিনি (বঙ্গবন্ধু) জীবনের জয়গান গেয়েছিলেন। বাংলার মানুষের মুক্তি চেয়েছিলেন, স্বাধীনতা চেয়েছিলেন। তারই নেতৃত্বে আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি। আমরা তারই অনুসারী, তার পদাঙ্ক অনুসরণ করেই আমরা পথ চলি। তার পদাঙ্ক অনুসরণ করেই আজকে বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে বাংলাদেশ দাঁড়াতে সক্ষম হয়েছে।

পদ্মা সেতু নির্মাণসংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ সেতু নির্মাণের সময় আমাদের অনেক ষড়যন্ত্র পোহাতে হয়েছে। অনেক যন্ত্রণা পোহাতে হয়েছে। আমার ছেলে জয়, মেয়ে পুতুল, শেখ রেহানা, রেদোয়ান মুজিব, সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী আবুল হোসেনসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি সহমর্মিতা জানাই।

শেখ হাসিনা এ সময় দেশবাসীসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, যারা এই পদ্মা সেতুর জন্য জমি দান করেছেন, তাদের এ ত্যাগের জন্য ধন্যবাদ জানাই।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.