আধুনিক পোশাক পরা তরুণীকে রেলস্টেশনে লাঞ্ছিতের ঘটনায় মামলা

নিউজ ডেস্ক:: আধুনিক পোশাক পরাকে কেন্দ্র করে নরসিংদী রেলস্টেশনে এক তরুণীকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় আদালতের নির্দেশে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই ইমায়েদুল জাহেদী বাদী হয়ে গতকাল শনিবার ভৈরব রেলওয়ে থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

জানা গেছে, গত ১৮ মে ভাের ৫টায় ট্রেনে ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশ্যে ভিকটিম ও তার বন্ধু নরসিংদী রেল স্টেশনের ১নং প্লাটফর্মে আসেন। এ সময় স্টেশনে উপস্থিত ২ জন নারী ও ৮-১০ জন পুরুষ ভিকটিমের পরনের পােশাক নিয়ে অশালীন মন্তব্য, গালিগালাজ ও একপর্যায়ে ভিকটিমের পােশাক টানাহেঁচড়া করে হেনস্তা করেন। ওই ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ যাচাই করে পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত ইসমাইল নামে এক বখাটেকে গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে আটক করে। পরে তাকে নরসিংদীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে।

সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান ঘটনার গুরুত্ব বিবেচনায় সংশ্লিষ্ট থানার ওসিকে নিয়মিত মামলা দায়ের করার নির্দেশ দেন। এর প্রেক্ষিতে নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই ইমায়েদুল জাহেদী বাদী হয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন।

এদিকে পুরো বিষয়টি অনুসন্ধানে মাঠে নামে সরকারের একাধিক দপ্তর। এরই ধারাবাহিকতায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিকালে নরসিংদী রেলস্টেশন এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। অভিযুক্ত বখাটে ও উচ্ছৃঙ্খল নারীকে গ্রেফতার করতে তৎপরতা চালিয়েছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ১৮ মে ঢাকা থেকে দুই যুবক ও এক তরুণী নরসিংদীতে বেড়াতে আসেন। ট্রেন থেকে নেমে তারা স্টেশনে অবস্থান করছিলেন। এ সময় এক মহিলা তাদের পোশাক দেখে বাজে ও নোংরা মন্তব্য করেন। একপর্যায়ে স্টেশনের স্থানীয় বখাটেসহ ওই মহিলা তরুণী ও যুবককে মারধর শুরু করেন। এ সময় মেয়েটির পোশাক ধরে টানাটানি করেন। তারা নিরুপায় হয়ে স্টেশনমাস্টারের রুমে আশ্রয় নেন।

অন্যদিকে তরুণীকে লাঞ্ছিতের ভিডিও ভাইরাল হলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিন্দার ঝড় উঠে। একই সঙ্গে বখাটে ও উচ্ছৃঙ্খল নারীকে আটকের দাবি জানানো হয়।

স্টেশনমাস্টার এটিএম মুছা জানিয়েছেন, তরুণীকে লাঞ্ছিত করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্টেশন এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়েছে এবং সিসিটিভির ফুটেজ দেখে বখাটে ও উচ্ছৃঙ্খল মহিলার বিষয়ে তদন্ত করছে পুলিশ।

নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান বলেন, তরুণীকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় জিআরপি পুলিশের পাশাপাশি জেলা পুলিশও তদন্ত করছে। এরই ধারাবাহিকতায় ওসি ডিবির নেতৃত্বে একটি দল অভিযান পরিচালনা করে ইসমাইল নামে একজনকে আটক করেছে। একই সঙ্গে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.