পাক সেনার লাশ ফেরত নেওয়ার আহ্বান ভারতের

ইন্ডিয়ান আর্মির দাবি নিহত ব্যক্তি পাকিস্তান সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (পাক আর্মি বর্ডার অ্যাকশনটিম) সদস্য।

সেনাবাহিনীর জিওসি ২৮ পতাদিক বাহিনীর মেজর জেনারেল এএস পেনধরকর বলেন, পাকিস্তানের ওই নাগরিক শনিবার কেরান সেক্টর দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালায়। ভারতের নিরাপত্তা বাহিনী এ ঘটনায় দ্রুত পদক্ষেপ নেয়। এতে পাকিস্তানের ওই অনুপ্রবেশকারী নিহত হন। ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত বেড়ার নিকট এই ঘটনা ঘটে।

ভারত সেনাবাহিনীর একজন সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, পাকিস্তানের ওই অনুপ্রবেশকারী মোহাম্মদ শাবির মালিক বলে শনাক্ত করা হয়েছে।

মেজর জেনারেল পনধরকার বলেন, অনুপ্রবেশের চেষ্টা দেখামাত্র দ্রুত অভিযান চালিয়ে অনুপ্রবেশকারীকে নিষ্ক্রিয় করা হয়। লাশের সঙ্গে একটি একে রাইফেল, গুলি এবং সাতটি গ্রেনেড উদ্ধার করা হয় বলেও জানান তিনি।

নিহত ব্যক্তি পাকিস্তান সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্য
নিহত ব্যক্তি পাকিস্তান সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্য

ভারতের সেনাবাহিনী ঘটনাস্থল থেকে পাকিস্তানের ওই ওই নাগরিকের সরকারি আইডি কার্ড উদ্ধারের দাবি করেছে।

মেজর পেনধরকর বলেন, এই ঘটনা স্পষ্টত পাকিস্তানের আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাসের নমুনা। এই ঘটনায় হটলাইনের মাধ্যমে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ করে লাশ ফেরত নিতে বলা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ভারত সেনাবাহিনী নিহত ব্যক্তির আইডি কার্ডের ছবি প্রকাশ করেছে। এতে ওই ব্যক্তিকে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ইউনিফর্ম পরা অবস্থায় দেখা গেছে। এছাড়া ওই ব্যক্তি পাক স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ইস্যু করা করোনা ভ্যাকসিনের সার্টিফিকেটও বহন করছিলেন।

অনুপ্রবেশ চেষ্টার ঘটনা ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের করা যুদ্ধবিরতির সম্পূর্ণ লঙ্ঘন বলেও মন্তব্য ভারত সেনাবাহিনীর।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.