শিক্ষিত জাতি গঠনে নারীর অবদান অনস্বীকার্য: জেলা প্রশাসক

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ২০১৯, বেগম রোকেয়া দিবস ও জেলা পর্যায়ে জয়ীতা সংবর্ধনা উপলক্ষ্যে জেলা প্রশাসন, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, জাতীয় মহিলা সংস্থা, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচি, ব্লাষ্ট, পলী
সমাজ সদস্য সংগঠনের যৌথ উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (৯ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসন চত্তরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহিনা আক্তারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন- সিলেট জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম।

এসময় তিনি বলেন, নারী কেবলমাত্র একটি সত্তার নাম নয় বরং সে একটি চালিকা শক্তি যাকে ছাড়া পৃথিবী স্তব্ধ-স্থবির। সভ্যতা বিনির্মাণে যুগে যুগে পুরুষের পাশাপাশি নারীও অবদান রেখে এসেছে সমান্যাংশে। প্রত্যেক যুগেই নারী তার মেধা, বুদ্ধি, যোগ্যতা, শ্রম এবং মমতার সংমিশ্রণে গড়ে তুলেছে ভবিষ্যতের বুনিয়াদ, জন্ম দিয়েছে নতুন ইতিহাসের। একটি শিক্ষিত জাতি গঠনের ক্ষেত্রেও নারীর অবদান এককভাবে স্বীকৃত, অনস্বীকার্য। নারী নির্যাতন প্রতিরোধে সকলকে সচেতন হতে হবে। একমাত্র সচেতনতাই পারে নারী নির্যাতন বন্ধ করতে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সাবেক এমপি সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, এডিসি জেনারেল মো. আসলাম উদ্দিন, যুব উন্নয়নের সহকারী পরিচালক মো. মিজানুর রহমান, উইমেন্স চেম্বারের পরিচালক স্বর্ণলতা রায়, জয়ীতা নির্বাচন জেলা কমিটির সদস্য সালমা বাছিত, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা সাইদুর রহমান ভূইয়া, ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক ফরিদ উদ্দিন, সাংবাদিক ও কলামিস্ট আফতাব চৌধুরী, এডভোকেট ইরফানুজ্জামান চৌধুরী, ব্যারিষ্টার আল হাদী প্রমুখ।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন- ব্র্যাক জেলা সমন্বয়কারী বিভাস চন্দ্র তরফদার, ব্র্যাক জোনাল ম্যানেজার খন্দকার আব্দুল হাকিম, ব্র্যাক জেলা ব্যবস্থাপক মুহাম্মদ কায়েম উদ্দিন, কর্মসূচী সংগঠক বিউটি রায়, পলীসমাজ সদস্য ও সর্বস্তরের নারী পুরুষ।

কমেন্ট