আবরার হত্যা নিয়ে জাতিসংঘের বিবৃতির ব্যাখ্যা চাইল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

সিলেট নিউজ টাইমস্ ডেস্ক
বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ড নিয়ে জাতিসংঘ ঢাকা অফিসের দেওয়া বিবৃতির বিষয়ে সরকারের অসন্তোষ ও বিরক্তির কথা জানানো হয়েছে।রোববার (১৩ অক্টোবর) সকালে জাতিসংঘ আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পোকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করে বাংলাদেশের অবস্থান ব্যাখ্যা করা হয়।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করে।সরকারের একটি সূত্র জানায়, সরকার মনে করে— জাতিসংঘ বাংলাদেশের উন্নয়ন অংশীদার। আবরার হত্যাকাণ্ডের মতো কোনও ঘটনার বিষয়ে জাতিসংঘ প্রতিনিধির বিবৃতি দেওয়া অনভিপ্রেত ও অনাকাঙ্ক্ষিত। আবাসিক প্রতিনিধিকে এ কথাই জানানো হয়েছে।রোববার সকালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জাতিসংঘ অনুবিভাগের মহাপরিচালক নাহিদা সোবহান জাতিসংঘ আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পোকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করেন।বেলা ১১টার দিকে মিয়া সেপ্পো পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আসেন। তিনি প্রায় ৪০ মিনিটের মতো সেখানে অবস্থান করেন।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ড নিয়ে জাতিসংঘের ঢাকা অফিস যে বিবৃতি দিয়েছিল, সে বিষয়ে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে আবাসিক প্রতিনিধির কাছে।প্রসঙ্গত, ৬ অক্টোবর (রোববার) রাতে বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদকে শেরে বাংলা হলের নিজ কক্ষ থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী।এরপর বুধবার (৯ অকোটাবর) এক বিবৃতিতে এ হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানানোর পাশাপাশি স্বাধীন তদন্তের মাধ্যমে এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের আহ্বান জানানো হয় জাতিসংঘের এক বিবৃতিতে।সূত্র আরও জানায়, ১০ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ হাই কমিশনারকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে এনে তাদের বিবৃতির জন্যও ব্যাখ্যা চাওয়া হয় এবং সরকারের তরফ থেকে বিরক্তি প্রকাশ করা হয়।

কমেন্ট