সিলেটে বিভাগ: ৫৮ শতাংশ কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ

96 total views, 1 views today

সিলেট নিউজ টাইমস্ ডেস্ক:: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট বিভাগের ১৯ সংসদীয় আসনে সব মিলিয়ে ২ হাজার ৮০৫টি ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ১ হাজার ৬২১ ভোটকেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ (গুরুত্বপূর্ণ) হিসেবে চিহ্নিত করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সেই হিসাবে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রের সংখ্যা শতকরা ৫৮ শতাংশ। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ ভোটকেন্দ্র রয়েছে হবিগঞ্জ জেলায়। এ জেলার মোট কেন্দ্রের প্রায় ৬৭ শতাংশই ঝুঁকিপূর্ণ। এসব কেন্দ্রে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

নির্বাচন কমিশন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সিলেট বিভাগের চার জেলার ১৯টি সংসদীয় আসনে সবমিলিয়ে ২ হাজার ৮০৫টি ভোটকেন্দ্র রয়েছে। এর মধ্যে ১ হাজার ৬২১ ভোটকেন্দ্রকে ‘গুরুত্বপূর্ণ’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রগুলোই মূলত ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ কেন্দ্র। বাকি ১ হাজার ১৮৪ ভোটকেন্দ্রকে সাধারণ ভোটকেন্দ্র বলে চিহ্নিত করা হয়েছে।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সূত্রে জানা গেছে, ২ হাজার ৮০৫টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) আওতাভুক্ত ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ২৯৩টি। এর মধ্যে সিলেট-১ আসনে ২১৫টি ও সিলেট-৩ আসনে ৭৮ ভোটকেন্দ্র রয়েছে। সিলেট-৩ আসনের দক্ষিণ সুরমা থানা ও মোগলাবাজার থানা এলাকার ভোটকেন্দ্র এসএমপির আওতাভুক্ত থাকলেও ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ উপজেলার কেন্দ্রগুলো সিলেট জেলা পুলিশের আওতায় পড়েছে। ১৯ সংসদীয় আসনের মধ্যে ১৮টি সংসদীয় আসন সিলেট রেঞ্জের আওতাভুক্ত। সিলেট মহানগর পুলিশের আওতাভুক্ত ২৯৩টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ২০২টি ভোটকেন্দ্রকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সিলেট রেঞ্জ পুলিশের আওতাভুক্ত ১৮টি সংসদীয় আসনের মোট ভোটকেন্দ্র ২ হাজার ৫১২টি। এর মধ্যে ১ হাজার ৪১৯ ভোটকেন্দ্র ‘ঝুকিপূর্ণ’। বাকি ১ হাজার ৯৩ ভোটকেন্দ্রকে সাধারণ ভোটকেন্দ্র বলে চিহ্নিত করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সিলেট জেলার ৬৯৯টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ৩২৩টি ঝুঁকিপূর্ণ ও বাকি ৩৭৬টি সাধারণ ভোটকেন্দ্র। সিলেট-১ (সিলেট সিটি করপোরেশন ও সিলেট সদর) আসনসহ এ জেলার ছয়টি সংসদীয় আসনে মোট ভোটার ২২ লাখ ৫২ হাজার ২৯৪ জন।

সুনামগঞ্জ জেলার ৬৬৮ ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ৪১৬টি ঝুঁকিপূর্ণ ও ২৫২টি সাধারণ ভোটকেন্দ্র। এ জেলার পাঁচটি সংসদীয় আসনের মোট ভোটার ১৬ লাখ ৪৬ হাজার ৭৭ জন। হবিগঞ্জ জেলার ৬৩৩টি ভোটকেন্দ্রের ৪২১টি ঝুঁকিপূর্ণ ও ২১২টি সাধারণ ভোট কেন্দ্র। ৪টি সংসদীয় আসনের এ জেলার মোট ভোটার ১৪ লাখ ২৫ হাজার ৫৬৪ জন।

মৌলভীবাজার জেলার ৫১২টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ২৫৯টি ভোটকেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ ও বাকি ২৫৩টি ভোটকেন্দ্রকে সাধারণ ভোটকেন্দ্র বলে চিহ্নিত করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

এদিকে, ঝুঁকিপূর্ণ ভোটকেন্দ্রগুলোয় নিরাপত্তা বলয় গড়ে তুলতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সিনিয়র কর্মকর্তারা দফায় দফায় কেন্দ্রগুলো পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করছেন।

মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ জানান, গুরুত্বপূর্ণসহ সব ভোটকেন্দ্রে অতিরিক্ত ফোর্স থাকবে। এজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

সিলেটের ডিআইজি কামরুল আহসান পিপিএম বলেন, গুরুত্বপূর্ণ ভোটকেন্দ্রে সাধ্যের মধ্যে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেবে পুলিশ। ইতোমধ্যে এ লক্ষ্যে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। সকল ভোটকেন্দ্রে পুলিশ সদস্যরা নিয়োজিত থাকবে। ভোটকেন্দ্রে আসা ভোটারদের নিরাপত্তাসহ ভোটকেন্দ্রে নির্বিঘ্ন পরিবেশ নিশ্চিত করা হবে।

সিলেটের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক কাজী এম এমদাদুল ইসলাম জানান, নির্বাচনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সিলেট জেলায় উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটাররা যেন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে, সেজন্য পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য মোতায়েন থাকবে।

উল্লেখ্য, রোববার সারাদেশে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একযোগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। শুক্রবার সকাল ৮টায় নির্বাচনের রাজনৈতিক দলগুলোর প্রচারণা শেষ হয়েছে।

কমেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.