দারুণ জয়ে সমতায় ফিরল বাংলাদেশ

109 total views, 1 views today

স্পোর্টস ডেস্ক::দেশের মাটিতে সর্বোচ্চ রান করল টাইগাররা। টি-টোয়েন্টিতে এর আগে ২১৫ রান করেছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তাদের মাটিতেই। আজ আর পাঁচটা রান হলে কলোম্বোও চাপা পড়তো ঢাকার কাছে। তাতেও বা কম কী! বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে ২১১ রান চাট্টিখানি কথা নয়।

সিলেটে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ক্যারিবীয়দের কাছে দুমড়ে-মুচড়ে গিয়েছিল টাইগারদের ব্যাটিং-বোলিং লাইন আপ। অমন হারে শঙ্কা জেগেছিল সিরিজ হারেরও। ভয় ছিল, এমন হারের পর ঘুরে দাঁড়াতে পারবে তো বাংলাদেশ?
যা হবার তাতো হয়েই গেছে। ওসব নিয়ে না বসে থাকার কথাটা গতকাল সংবাদ সম্মেলনে সৌম্য সরকার জানিয়ে দিয়েছিলেন ঠিকই। এও বলেছিলেন, আমরা প্রস্তুত চ্যালেঞ্জ নিতে।

সৌম্যর কথামতো বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে চ্যালেঞ্জ নিয়ে ঠিকই ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ। ক্যারিবীয়দের হারিয়ে ফিরে আসলো সিরিজে। এবার অপেক্ষা সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ জিতে তিন ফরম্যাটে টানা তিনটি সিরিজ জয়ের।

বিকালে মিরপুর শের ই বাংলা স্টেডিয়ামে টসে জিতে ক্যারিবীয় অধিনায়ক ব্যাটিংয়ে পাঠায় বাংলাদেশকে। এখন বলা যায়, সিদ্ধান্তটা নিজের পায়ে নিজে কুড়াল মারার মতোই!

ব্যাটিংয়ে নেমে দুই ওপেনার তামিম ইকবাল আর লিটন দাস মিলে শুরু করেছিলেন দুর্দান্ত কিন্তু, ব্যক্তিগত ১৬ রানের মাথায় ফাবিয়ান এলেনের বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তামিম।

এরপর যেন আরও দুর্বার হয়ে গেল লিটন-সৌম্যের জুটি। দুজনের জুটি থেকে আসে ৬৮ রান। সৌম্য করেন ২২ বলে ৩২ রান। লিটন রান তুলতে থাকেন দ্রুত গতিতে। ২৬ বলে তুলে নেন ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় অর্ধশতক। শেষ পর্যন্ত ৩৪ বলে করেন ৬০ রান।

মুশফিক এলেন আর গেলেন ১ রান করে। সাকিব-মাহমুদুল্লাহ মিলে খেললেন শেষ পর্যন্ত। সাকিব করেন ২৬ বলে ৪২ আর মাহমুদুল্লাহ করেন ২১ বলে ৪৩ রান।

২০ ওভারে ৪ উইকেটে ২১১ রান করে বিশাল লক্ষ্য ছুড়ে দেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে।

ক্যারিবীয়দের হয়ে শেলডন কটরেল নেন ২ উইকেট। ১ উইকেট করে নেন ওশান থমাস আর ফ্যাবিয়ান এলেন।
টাইগারদের দেয়া পাহাড়সম লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে টাইগার বোলারদের সামনে দিশেহারা হয়ে পড়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

ওপেনার এভিন লুইসকে ফিরিয়ে শুরুটা করে দেন পেসার আবু হায়দার। এরপর সাকিবের কাছে ধরাশয়ী ক্যারিবীয় টপ অর্ডার। একপ্রান্ত থেকে সাকিব অন্য প্রান্তে মিরাজ আর মুস্তাফিজ মিলে দাড়াতেই দিলো না বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের।
ক্যারিবীয়দের যাওয়া আসার মিছিলেও রোভম্যান পাওয়েল তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম অর্ধশতক। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৬ রান আসে শাই হোপের ব্যাট থেকে। ২৯ রান করেন কেমো পল।

টাইগার বোলারদের তোপের মুখে ২০ ওভারও খেলতে পারেনি ক্যারিবীয়রা। ১৯.২ ওভারে ১৭৫ রান তুলতেই হারায় সব উইকেট, তাতে ৩৬ রানের জয়ে সিরিজে ফিরলো বাংলাদেশ।

টাইগারদের হয়ে ৫ উইকেট নেন সাকিব। তাতে ম্যাচ সেরার পুরস্কারটাও নিজের করে নেন টাইগার অধিনায়ক। এছাড়াও ২ উইকেট নেন মুস্তাফিজ ও ১ উইকেট করে নেন আবু হায়দার, মিরাজ আর মাহমুদুল্লাহ।

সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২২ ডিসেম্বর।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •