বাংলাদেশের প্রতিটা থানায় হউক এক একজন সৎ এস,এম,রোকন উদ্দিন

156 total views, 1 views today

শংকর দত্ত:: পুলিশ নিয়ে অনেকের বিরুপ ধারনা থাকলেও সাবেক সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরুক্ত কমিশনার (বর্তমানে এডিশনাল ডিঅাইজি চট্রগ্রাম) এস.এম, রোকন উদ্দিন অনেকেরই ধারনা পাল্টে দিয়েছেন।

এস,এম, রোকন উদ্দিন একজন সংগীত প্রেমী গীতকবি, ক্রিড়া সংগঠক, সৎ ব্যতিক্রম পুলিশ অফিসার। সহকর্মি এবং সাধারন জনগনের আদর্শগত ভিন্নতা মেনে নিয়ে পরস্পরের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন প্রতিনিয়তই। “পুলিশ জনগনের বন্ধু” তিনি বাক্যটির জীবিত নিদর্শন। তিনি অন্যতম একজন আদর্শ পুলিশ অফিসার।

পুলিশি সহায়তার সাহায্য চেয়ে কেহ শূণ্য হাতে ফিরে নাই। এস,এম, রোকন উদ্দিন সিলেটবাসীর জন্য একজন আদর্শ অফিসার ছিলেন। তাই অাজও স্বশ্রদ্ধ্যায় স্মরণ করে।

সাধারন মানুষ পুলিশি জামেলায় ফোন করলে বিরক্ত বোধ করেন না। তিনি চিটাগাংয়ে বসেও সমাধান করেন। সুনামগঞ্জ-সিলেট-রাজশাহী সাধারন ভুক্ত ভোগীদের। বলেন নি, কখনো বলেও না অামি পারবো না। বরং সমাধান করেন সুন্দর করে বুঝিয়ে।

তারই সুবিধাভোগী সুনামগঞ্জ জেলার অাবু সুফিয়ান ফাহিম, রিয়াজ উদ্দিন রাজন, সিলেটের শাহীন অালম, সজীব দত্ত নাম না জানা অসংখ্য জন।

সূত্রে যানা যায়, রাজশাহী পুলিশ সুপার থাকাবস্থায় অনেকটাই চিত্র পাল্টেন দেন এস,এম,রোকন উদ্দিন। পুলিশের সাথে গল্প করতে, চা খাচ্ছে এটা কি কল্পনা করতে পারা যায়? যেখানে একটি জিডি লিখাতে কত হয়রানির শিকার হতে হয়ে। সেখানে তিনি এই ভিন্ন চিত্র স্থাপন করেছেন যা সত্যিই অবিশ্বাস্য। উনার এলাকায় যে কেউ যেকোন সমস্যা নিয়ে সরাসরি দেখা করতে পারেন।

মানুষ মানুষের জন্য, মাত্র একজন মানুষের আন্তরিক প্রচেষ্টায় বদলে যেতে পারে কোন অবহেলিত জনপদের জীবনযাত্রা। ঘুরে দাঁড়াতে পারে যুব ও তরুণ সমাজ। মহিলারা হতে পারেন সাবলম্বী। অবহেলিত শিশুরা হয় শিক্ষিত। ইচ্ছা থাকলে যুগ যুগ ধরে অবহেলিত হলেও নিজ প্রচেষ্টায় কর্মক্ষম মানুষ গাইতে পারে জীবনের জয়গান।

“পুলিশ জনগনের বন্ধু”এডিশনাল ডিঅাইজি এস,এম, রোকন উদ্দিন বাক্যটির জীবিত নিদের্শন। তিনি বলেন, অামার একার পক্ষে কোন কিছুই সম্ভব না সহকর্মি ভালো পুলিশ অাছে বিধায় ভালো কাজ করা সম্ভবপর হয়। পুলিশ জনগনের শুধু বন্ধুই নয়-সেবকও। পুলিশ সব সময়ই জনগনের বন্ধু হিসেবে জনগনের পাশে ছিল আগামীতেও থাকবে। জনগনের আন্তরিক সহযোগিতা ছাড়া পুলিশের পক্ষে ব্যাপক জনগোষ্টির সেবা দেয়া সম্ভব নয়।

জনগনকে সেবা পেতে হলে পুলিশিং কার্যক্রমে- এলাকাবাসীকে এগিয়ে আসতে হবে। জীবন সংগ্রামকে সঠিক ভাবে উপলব্ধি করার জন্য প্রয়োজন সঠিক মানুষের। যে দিন এই বাংলাদেশের প্রতিটা থানায় একজন করে এস.এম রোকন উদ্দিনের মত সৎ পুলিশ অফিসার থাকবেন সেদিনই বাংলাদেশ হয়ে উঠবে নিরাপদ,সুন্দর এবং শান্তির দেশ।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •