‘মরণের আগে বিদ্যুৎ পাব কিনা জানি না’

57 total views, 1 views today

আজিজুল ইসলাম সজীব:: ‘মরণের আগে বিদ্যুৎ পাব কিনা জানি না’। ‘বৃদ্ধ বয়সে বিদ্যুৎ অফিসে যেতে যেতে আমি ক্লান্ত হয়ে পড়েছি’। এ কথাগুলো অনেকটা আক্ষেপের সুরেই বলছিলেন মুক্তিযোদ্ধা নজীর হোসেন।

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের মালঞ্চপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা নজীর হোসেন গত দুই বছর ধরে ঘুরাফেরা করেও বিদ্যুৎ পায়নি। অথচ সরকার তাঁকে অসহায় মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ৯ লাখ টাকা ব্যয় করে একটি ঘর করে দিলেন। কিন্তু এই ঘরে বিদ্যুতের আলো জ্বালাতে পারেনি তিনি।

এই মুক্তিযোদ্ধা নিজের ঘরে বিদ্যুতের আলো পেতে গত দুই বছর ধরে নোয়াপাড়া পল্লী বিদ্যুৎ আঞ্চলিক কার্যালয়ে ঘুরা ফেরা করে তিনি এখন হয়রান হয়ে পড়েছেন।

মুক্তিযোদ্ধা নজীর হোসেন বলেন, অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে দুই বছর আগে সরকার একটি ঘর দিয়েছে। কিন্তু ঘর নির্মাণে নিম্নমানের উপকরণ ব্যবহার করা হয়েছে। বিদ্যুতের জন্য দুই বছর ধরে নোয়াপাড়া পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে আসা যাওয়া করছি কিন্তু এখনো বিদ্যুৎ পাব কিনা কোন নিশ্চয়তা নেই।

নোয়াপাড়া পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের জুনিয়র প্রকৌশলী তপন কুমার দে বলেন, তার আবেদনটি কিভাবে আছে আমাদের জানা নেই। অবশ্যই তাকে বিদ্যুৎ দেওয়া হবে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  • 73
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    73
    Shares