সিলেট নিউজ টাইমস্ | Sylhet News Times

বাহুবলে ৪ মাতব্বরের বিরুদ্ধে আইনগত সিদ্ধান্ত নিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে হাইকোর্টের নির্দেশ

86 total views, 1 views today

আজিজুল ইসলাম সজীব:: হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলার খাগাউড়া গ্রামের ৪ মাতব্বরের বিরুদ্ধে আইনগত সিন্ধান্ত নিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জসীম উদ্দিনকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। গত ৩০ জুলাই বিচারপতি মি. মোঃ আশফাকুল ইসলাম ও মোহাম্মদ আলী স্বাক্ষরিত এক পত্রে এ আদেশ প্রদান করা হয়।

গত ২৩ জুন বাহুবল উপজেলার খাগাউড়া গ্রামের মোঃ জুনাব আলীর আবেদনের প্রেক্ষিতে এ আদেশ প্রদান হাইকোর্ট। জানা যায়, বাহুবল উপজেলার খাগাউড়া গ্রামের মোঃ জালাল উদ্দিনের পুত্র বাদি হয়ে একই গ্রামের মাতব্বর শওকত মিয়া, শাহ গেদা মিয়া, হাজী আব্দুস শহিদ, আব্দুল মালিক ওরফে সেগেন মিয়া বিরুদ্ধে এলাকার জলমহালে বিশাল অংশের টাকা ও গ্রাম উন্নয়নের ফান্ডের টাকা আত্মসাত ও তাকে গ্রাম ছাড়ার হুমকিসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে একটি লিখিত আবেদন করেন।

এছাড়াও তিনি অবেদনে আরও উল্লেখ করেন, ওই গ্রামে একটি জলমহাল রয়েছে, যা লীজ দিয়ে প্রতি বছর ৪০/৪৫ লক্ষ টাকা আয় হয়। এই টাকা গ্রাম উন্নয়নের খাতে ব্যয় করার কথা থাকলেও উল্লেখিত মাতব্বরা নিজেরা ভোগ করে আসছেন। এ ব্যাপারে তিনি গ্রামের কয়েকজন যুবককে নিয়ে মাতব্বরদের কাছে হিসাব চাইলে তারা বিভিন্নভাবে তাকে হয়রানী শুরু করে। প্রথমে মাতব্বরা জুনাব আলীকে গ্রাম ছাড়ার নির্দেশ দেন বলে তিনি আবেদনে উল্লেখ করেন।

এছাড়াও গ্রামের মাতব্বররা তাকে ধরিয়ে দিতে পারলে ২০ হাজার টাকা পুরস্কার দেয়া হবে বলে ঘোষনা দেন। এক পর্যায়ে তিনি তাদের ভয়ে গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে যান। যে কারনে তার চাচা মারা গেলেও তিনি লাশ দেখতে পারেননি বলে আবেদনে উল্লেখ করেন। বিষয়টি আমলে নিয়ে ওইদিনই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জসীম উদ্দিন সংশ্লিষ্ট স্নানঘাট ইউপি চেয়ারম্যানকে জরুরী ভিত্তিতে এ ব্যাপারে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য নির্দেশ দেন। কিন্তু এরপর বিষয়টি অজ্ঞাত কারনে কোন প্রদক্ষেপ না নেয়ায় তিনি এ বিষয়ে হাইকোর্টে রিটপিটিশন করেন। যার নং- ৯৭২০/২০১৮ইং। এ প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তা মোঃ জসীম উদ্দিনকে এই আবেদনের বিষয়ে আইনগত স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন বলে আদেশ দেন।

আদেশ নামায় উল্লেখ করা হয় “বাদীর আবেদন খানার শুনানী গ্রহন করে বিচার বিশ্লেষন করা হলো, বর্তমান অবস্থায় আমরা কোন রুল ইস্যু না করে রেসপন্ডেন্ট নং-৬ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বাহুবলকে এই নির্দেশ প্রদান করছি যে, তিনি বাদীর আবেদনটি আইনগত নিস্পত্তি করবেন’ যা হোক আমাদের কাছে এ বিষয়টি পরিস্কার যে, রেসপন্ডেন্ট-৬ এই আবেদনের বিষয়ে আইনগত স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন’।

কমেন্ট
শেয়ার করুন