সিলেট নিউজ টাইমস্ | Sylhet News Times

নবীগঞ্জে গার্মেন্টস কর্মীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার স্বামী ও সতীন আটক

59 total views, 1 views today

আজিজুল ইসলাম সজীব::হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জে বিয়ের তিন মাস যেতে না যেতেই রুমি আক্তার (২২) নামে এক নববধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। লাশের ছুরতহাল রিপোর্ট তৈরী শেষে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। শনিবার সকালে উপজেলার হীরাগঞ্জ বাজারের একটি দুতলা বাসায় এ ঘটনাটি ঘটে। রুমি উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের জালালসাফ গ্রামের আশ্বদ মিয়ার কন্যা ও স্থানীয় জেআইসি স্যুট গার্মেন্টস এর কর্মী। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার স্বামী নূর আলম (৩৫) ও তার প্রথম স্ত্রী রিমাকে আটক করেছে পুলিশ। নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম আতাউর রহমান জানান, শনিবার দুপুরের দিকে রুমি আক্তারের বাসার একটি কক্ষে তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে পুলিশকে খবর দেওয়া হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে মৃতের মরদেহ উদ্ধার করে। এসময় রুমি আক্তারের স্বামী নুর আলম সে ফাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে পুলিশকে জানায়। এক পর্যায়ে পুলিশ নুর আলমের কথাবার্তায় সন্দেহ হয়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যায়। এর পর তার প্রথম স্ত্রী রিমাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য আটক করেছে। নুর আলম নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার ছিলিমপুর গ্রামের হেলাল উদ্দিন মিয়ার পুত্র ও একই গার্মেন্টস এর কর্মচারী। প্রায় তিন মাস আগে সে রুমিকে বিয়ে করেছিল। বিষয়টি নিয়ে পুলিশ আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদসহ তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানান ওসি।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান হারুন বলেন, রুমি ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে নাকি নুর আলম তাকে হত্যা করে ফাস লাগানোর নাটক করছে বিষয়টি স্পষ্ট নয়। আমরা বিষয়টি সুষ্ট তদন্তের মাধ্যমে যেন প্রকৃত ঘটনা উৎঘাটন হয় সে জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি তার দাবী জানাই।

কমেন্ট
শেয়ার করুন