গোলাপগঞ্জে তরুণী ধর্ষক অভিযুক্ত রেহানকে আটক করেছে পুলিশ

43 total views, 4 views today

নিজস্ব প্রতিনিধি:: সিলেটের গোলাপগঞ্জে এক তরুণী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষক অভিযুক্ত রেহানকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত ধর্ষক উপজেলার ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়নের কানিশাইল নওয়া পাড়া গ্রামের মৃত কুটু মিয়ার পুত্র রেহান আহমদ (৩৫)।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ২ দিন আগে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সুনামগঞ্জের এক তরুণীকে ফুসলিয়ে সিলেটে নিয়ে আসে। পরে সিলেট থেকে তার কানিশাইলস্থ বাড়িতে নিয়ে এসে একাধিক বার ধর্ষণ করে তরুণীকে। ধর্ষণের পর তরুণীকে নিয়ে সিএনজি যুগে বিয়ানীবাজার যাওয়ার পথে বিজিবি ক্যাম্পের সামনে পৌছা মাত্র বিজিবি সদস্যদের দেখে তরুণী চিৎকার দিয়ে সিএনজি থেকে লাফ দিয়ে নেমে যায়। তখন বিজিবি সদস্যরা অভিযুক্ত রেহান আহমদসহ তরুণীকে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশের হাতে হস্তান্তর করে।

আটককৃত ধর্ষক রেহানের বিরুদ্ধে ধর্ষনের শিকার তরুণী নিজে বাদী হয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা (নং-১০/১৮-০২-১৮) দায়ের করে।

তবে অভিযুক্ত রেহান দীর্ঘদিন থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বিভিন্ন কৌশলের আশ্রয় নিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে প্রেমের ফাঁদে ফেলে একাধিক তরুণীকে। তরুণীদেরকে কৌশলে তার বাড়িতে এনে একের পর এক নিজে ও একাধিক ব্যক্তিকে দিয়ে ধর্ষণ করাতো বলে রেহান আহমদ পুলিশকে জানিয়েছে।

এব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম ফজলুল হক শিবলী জানান, ধর্ষণের শিকার তরুণীকে ফরেনসিক রিপোর্টের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানা পুলিশ। ধর্ষণকারী রেহানকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •