সিলেট নিউজ টাইমস্ | Sylhet News Times

কানাইঘাটে ডাকাত সর্দার গ্রেফতার

116 total views, 4 views today

নিজস্ব প্রতিনিধি:: কানাইঘাটে দীর্ঘদিন ধরে ডাকাতি করে আসছিলো। এরি ধারাবাহিকতা ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার কালে ডাকাত সর্দার এনাম সহ দু’জনকে গ্রেফতার করায় এলাকায় স্বস্তি ফিরে এসেছে। গতকাল বুধবার রাত ১টায় পৌরসভাস্থ পল্লীবিদ্যুৎ জোনাল অফিসের সামনে থেকে সিএনজি গাড়ি সহ তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

জানা যায় উপজেলার লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপির গৌরীপুর গ্রামের মৃত শফিকুল হকের পুত্র ডাকাত সর্দার এনাম উদ্দিনের নেতৃত্বে ৮-১০ জনের একটি দল আন্দো নদী জল মহালের তীরবর্তী মহিলা কলেজের পাশে গোপনে গোলমিটিং করছিল।

এসময় কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল আহাদ, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. নুনু মিয়ার নেতৃত্বে একদল পুলিশ ডাকাত দলের গতিবিধি লক্ষ্য করেছিলেন। এক পর্যায় বিভিন্ন গ্রামের মসজিদের মাইকে ডাকাত দলের অবস্থানের ঘোষণা দেওয়া হলে চারিদিক থেকে শত শত মানুষ রাস্তায় বেরিয়ে আসে। পরে পুলিশ ও জনতার খবর পেয়ে ডাকাত দল পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুর্বে থেকে পুলিশের কৌশলী ফাঁদে আটকা পড়ে ডাকাত সর্দার এনামসহ কানাইঘাট সদর ইউপির জন্তিপুর গ্রামের মৃত বশির আহমদের পুত্র তাকমিল ইসলাম।

এ সময় তাদের সিএনজি গাড়ি থেকে দরজা ও তালা ভাঙ্গার সাবল, প্রায় ৪ ফুট লম্বা তরবারী, দা, মুখোশ, শব্দ বিহীন ড্রিল মেশিন, রড, গ্রিল ভাঙ্গার যন্ত্র, চাকু ও ২টি ছোরা উদ্ধার করে পুলিশ।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায় এনাম ছন্দবেশী পেশাদার একজন ডাকাত। তার বিরুদ্ধে কানাইঘাট থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল আহাদ জানান, গত রাতে যথা সময়ে তাদের ধরা না হলে তারা যে কোন বাড়িতে অঘটন ঘটাতো। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা প্রায় সন্ধ্যা রাত থেকে তাদের গতিবিধি লক্ষ্য করেছেন। এক পর্যায় জনতার সহযোগীতায় তারা মূল আসামীদের গ্রেফতার করেন। এছাড়াও তিনি জানান জিজ্ঞাসাবাদে পালিয়ে যাওয়া যাদের নাম চলে এসেছে তাদেরকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন