সিলেটে যৌতুকলোভী স্বামী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে নির্যাতিতা স্ত্রীর মামলা

25 total views, 1 views today

সিলেটে যৌতুক ও নির্যাতনের অভিযোগ এনে স্বামী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন নির্যাতিতা স্ত্রী। গত ১৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার এসএমপি জালালাবাদ থানায় এ মামলা দায়ের করেন বিশ্বনাথ থানার হাজারীগাও গ্রামের বশির উদ্দিনের মেয়ে মাছুমা বেগম। মামলা নং- ১২।

মামলার এজাহারে তিনি উলে­খ করেন, বিগত ২০১৬ সালে সিলেট জালালাবাদ থানাধীন কালিবাড়ি পয়েন্টের শাহজালাল আ/এ ব্লক এর বাসিন্দা উমর জালালী আজাদের সাথে বিয়ে হয় মাছুমা বেগমের। বিবাহের পর থেকে স্বামীর বাড়ির লোকজন তাকে যৌতুকের দাবিতে মারধর করে। স্বামীর বড় ভাই উসমান জালালী জাকির, ছোট ভাই সারওয়ার জালালী খিজীর, শামীমা জালালী মদিনা ও মা আফিয়া জালালীর ইন্দনে তার স্বামী উমর জালালী আজাদ সব সময় তাকে বাপের বাড়ি থেকে যৌতুক আনার কথা বলে। এমনকি স্বামীর বাড়ির লোকজন তাকে শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন চালায়। তার শ্বাশুড়ী আফিয়া জালালীর নির্দেশে তার স্বামী, দেবর ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন অমানবিক মারধর করতে থাকে। দাম্পত্য জীবনে মাছুমা বেগম ও উমর জালালী আজাদের একটি সন্তান জন্ম নেয়।জন্মের আড়াই মাস পরে সে সন্তানও মারা যায়। এরপর থেকে নির্যাতনের স্টিম রোলার বাড়তে থাকে। মাছুমা বেগমের প্রবাসে থাকা ভাই নোমান আহমদের কাছ থেকে টাকা ও ৫টি কম্পিউটার আনার জন্য বলা হয়। একপর্যায়ে ৫ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করলে মাছুমা বেগম অনিহা প্রকাশ করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গত ১৪ জানুয়ারি রোববার বিকাল ৪টায় স্বামীর বাড়ির লোকজন তাকে মারধর শুরু করে।

তার তলপেটে লাথি, কিল, ঘুষি মেরে তাকে গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়। আশপাশের লোকজন তার আর্তচিৎকার শুনে তাকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেলে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করেন। গত ১৪ ও ১৫ জানুয়ারি মাছুমা বেগম ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। এব্যাপারে জালালাবাদ থানার অফিসার ইনচার্জ মামলার সত্যতা স্বীকার করেন।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •