যুবলীগ নেতা হান্নানকে নিয়ে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে দুই ঘন্টার নাটকীয়তা

157 total views, 1 views today

সুনামগঞ্জের হাওর ‘দুর্নীতি’ মামলার আসামী ও সিলেটের যুবলীগ নেতা আব্দুল হান্নান দেড় মাস পর দেশে ফিরেছেন। রোববার সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে (নম্বর বিজি-২০২) তিনি দেশে ফেরেন বলে সংশ্লিষ্ট একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে।

সূত্র জানায়, যুবলীগ নেতা হান্নানের দেশে ফেরার বিষয়ে ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে ‘স্টপ অর্ডার’ ছিল। এ কারণে বিমান থেকে নামার পর ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে বিমানবন্দরে বসিয়ে রাখে। পরে এম এ হান্নান উচ্চ আদালত থেকে তিন মাসের জামিনে থাকার বিষয়টি ইমিগ্রেশন পুলিশকে জানান। ইমিগ্রেশন পুলিশের পক্ষ থেকে দুর্নীতি দমন কমিশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথেও যোগাযোগ করা হয়। দুদকসহ সংশ্লিষ্টদের ছাড়পত্র প্রাপ্তিশেষে প্রায় দু ঘন্টা পর ইমিগ্রেশন শেষ করে যুবলীগ নেতা হান্নানকে বিমানবন্দর ত্যাগ করতে দেয়া হয় বলে ওই সূত্র জানায়।

এ ব্যাপারে ওসমানী বিমানবন্দরের দায়িত্বপ্রাপ্ত ওসি ইমিগ্রেশনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘ হান্নান বিমানবন্দর ইমিগ্রেশনে আসলেও আমাদের পর্যন্ত আসেনি। এ জন্য এ বিষয়ে আমরা কিছু বলতে পারছি না।’

গত ৩ আগস্ট হাওরে দুর্নীতির বিষয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)’র ১৫ কর্মকর্তা, ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণকাজের ৪৬ জন ঠিকাদার এবং প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির (পিআইসি) ৭৮ জনসহ ১৪০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন সুনামগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল হক । এর আগে এ ঘটনায় দুর্নীতির অভিযোগে ৬১জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

এ মামলার আসামী এম এ হান্নান গত নভেম্বরের মধ্য ভাগে সিলেটের একজন শীর্ষ রাজনৈতিক নেতার সাথে ভারতে যান। বিষয়টি মিডিয়ায় ফলাও করে প্রচারিত হলে হান্নান আর দেশে ফিরেননি। প্রায় দেড় মাস পর আজ রোববার তিনি দেশে ফিরলেন।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •